স্মার্টফোন ব্যবহারে ভিন্নমাত্রা দিতে এসেছে গ্যালাক্সি এম৩১

তরুণদের স্মার্টফোন ব্যবহারে ভিন্নমাত্রা দিতে শক্তিশালী ব্যাটারি, চমকপ্রদ মোবাইল ফটোগ্রাফি এবং দুর্দান্ত মাল্টিমিডিয়াসহ এম সিরিজের নতুন স্মার্ট ডিভাইস গ্যালাক্সি এম৩১ নিয়ে এসেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

দক্ষিণ কোরিয়ার সর্ববৃহৎ এ প্রতিষ্ঠানটি ইতোমধ্যে তাদের নতুন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১ ডিভাইসটি বিশ্বব্যাপী উন্মুক্ত করেছে।

এক নজরে দেখে নিন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১ স্মার্টফোনের বৈশিষ্ট্যগুলো-

গ্যালাক্সি এম৩১ রয়েছে ৬,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। ফলে ব্যাটারি ব্যাকআপের টেনশন ছাড়াই নিশ্চিন্তে ফোনটি ব্যবহার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তিতে ফুল চার্জ দিয়ে ২১ ঘণ্টা পর্যন্ত ইন্টারনেট, ২৬ ঘণ্টা পর্যন্ত ভিডিও, ৪৮ ঘণ্টা কথা বলা ও ১১৯ ঘণ্টা গান শোনা যাবে। ফলে, যারা মোবাইলে দীর্ঘক্ষণ ইন্টারনেট ব্যবহার, ভিডিও উপভোগ, কথা বলা ও গান শুনতে পছন্দ করেন তাদের বেশ উপযোগী হতে পারে গ্যালাক্সি এম৩১ স্মার্ট ডিভাইসটি। 

যারা মোবাইল ফটোগ্রাফি করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য গ্যালাক্সি এম৩১-এ রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। যা দিয়ে অনায়াসে চমৎকার সেলফি তোলা যাবে। এছাড়াও, ডিভাইসটিতে রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেলের ডেপথ ক্যামেরা। ডিভাইসটির ৬৪ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা দিয়ে দিনে কিংবা রাতে যেকোনো সময় ঝকঝকে ও উজ্জ্বল ছবি তোলা যাবে।

এ ফেনাটিতে লাইভ ফোকাস ইফেক্ট থাকায় ব্যাকগ্রাউন্ডের ডেপথ অব ফিল্ড ছবি তোলার আগে ও পরে যেকোনো সময় অ্যাডজাস্ট করে সাবজেক্টকে হাইলাইট করা যাবে। পাশাপাশি, এতে ক্যামেরায় প্রফেশনাল গ্রেডের অ্যাকশন ক্যামেরা ফিচার পাওয়া যাবে। এছাড়াও গ্যালাক্সি এম৩১ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০ ধরনের সিন রিকগনাইনজ ও কালার এনহ্যান্স করতে পারবে।

স্মার্টফোনটিতে নিজস্ব এডিটিংয়ের ব্যবস্থা থাকায় সোশ্যাল মিডিয়াতে ছবি আপলোড করার আগে কোনো থার্ড পার্টি অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে না। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের সেলফি মোড ব্যবহার করে চমৎকার সেলফি তুলে এডিটিংয়ের ঝামেলা ছাড়াই সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা যাবে।

গ্যালাক্সি এম৩১ স্মার্ট ডিভাইসটিতে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি এফএইচডি+ এসঅ্যামোলেড ডিসপ্লের সুবিধা। ডিভাইসটির অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে এক্সিনোস ৯৬১১ প্রসেসর (১০ ন্যানোমিটার), অক্টাকোর-কোয়াড ২.৩ গিগাহার্টজ + কোয়াড ১.৭ গিগাহাটর্জ স্পিড। ডিভাইসটি অ্যানড্রয়েড ১০ ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেমে চলবে, যা ব্যবহারকারীকে ফোন ব্যবহারের দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে।   

ব্যবহারকারীদের কথা বিবেচনা করে শক্তিশালী ব্যাটারির, হাই রেজ্যুলেশন মোবাইল ফটোগ্রাফি ও দুর্দান্ত মাল্টিমিডিয়া অভিজ্ঞতা দিতে শিগগিরই বাংলাদেশের বাজারেও নতুন গ্যালাক্সি এম৩১ নিয়ে আসবে স্যামসাং।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!