‘সেক্সি’ শুনতে শুনতে ক্লান্ত হয়ে বলিউড ছাড়লেন রিয়া!

রিয়া সেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী! শুরু থেকেই সাহসী সব ফটোশুট ও অভিনয়ে নজর করেছিলেন তিনি। সুচিত্রা সেনের ছোট নাতনির জন্য এটিই যেন কাল হয়ে গেল। ‘সেক্সি’, ‘সাহসী’ শুনতে শুনতে ক্লান্ত হয়ে বলিউডই ছেড়ে দিলেন রিয়া।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, রিয়া সেন সম্প্রতি তার সঙ্গে লাগা ‘সেক্সি’, ‘সাহসী’ ট্যাগ নিয়ে কথা বলেছেন। এতে তিনি এ পরিচয়ের প্রতি বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

রিয়া সেন বলেন, ‘তখন মাত্র ১৬। সেই থেকে শুনছি, আমি ‘‘সেক্সি’’, আমি ‘‘সাহসী’’। শব্দ দুটি সেই যে সেঁটে গেল গায়ে, আর মুছলই না! তখন থেকে এর ভার বইতে বইতে আমি ক্লান্ত। আর ভাল লাগে না শুনতে। রাস্তায় বা পার্টিতে সাধারণ মানুষ আমায় দেখলেই আড় চোখে এমন ভাবে তাকান যেন পর্দা আর বাস্তবের আমি এক! সত্যিই কি তাই?’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘শুরু থেকে বলিউড আমাকে এই ধরনের চরিত্র দেওয়ায় আজ এই দমবন্ধকর অবস্থা তৈরি হয়েছে। যার ঠ্যালায় আমি মন খুলে মিশতেও পারছিলাম না কারও সঙ্গে। স্কুলের সময় থেকে আজও পর্যন্ত শুনে আসা এই দুটি তকমা তাই যে করেই হোক মুছতে চাইছিলাম।’

রিয়া সেনের দাবি, একঘেয়ে চরিত্র পেতে পেতে তিনি বিরক্ত হয়ে যাচ্ছিলেন। দিনের পর দিন চুল কার্ল করে, চড়া মেকআপ নিয়ে আর কাজ করতে পারছিলেন না। তাই অনেক ভেবেচিন্তে বলিউড ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

রিয়া সেন এখন কাজ করছেন ওয়েব সিরিজে। চলতি মাসেই মুক্তি পেয়েছে এমএক্স প্লেয়ার্সের ওয়েব সিরিজ ‘পতি, পত্নী ঔর উও’। এ ওয়েব সিরিজে রিয়া অভিনয় করছেন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে। এই চরিত্র নিয়ে তিনি বলেন, ‘দারুণ লাগছে কাজ করে। হিন্দি ছবির দুনিয়া থেকে ওয়েব প্ল্যাটফর্ম অনেক অন্যরকম।’

উল্লেখ্য, ‘ঝঙ্কার বিটস’, ‘আপনা স্বপ্না মানি মানি’, ‘হে বেবি’সহ বেশ কয়েকটি হিন্দি ছবিতে দেখা গিয়েছে রিয়া সেনকে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!