সুশান্ত হত্যা: ভালোবাসার মূল্য দিতে প্রস্তুত রিয়া চক্রবর্তী

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর। ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি) দপ্তরে  রোববার( ৬ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ পুলিশি প্রহরায় পৌঁছে যান তিনি। আজকের মতো জিজ্ঞাসাবাদের পর্ব শেষ। আগামীকাল সোমবার জেরার জন্য রিয়াকে ফের তলব করেছে দেশটির নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো।

মাদককা-ে তার ভাই শৌভিকের পর তাকেও গ্রেপ্তার করা হবে কি না, তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। রিয়া কি আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেছেন? কী বলছেন তাঁর আইনজীবী? রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে দেশটির সংবাদ সংস্থাকে বলেন, বিহার পুলিশ থেকে শুরু করে সিবিআই, ইডি এবং এনসিবি কোনো ক্ষেত্রেই রিয়া আদালতে আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেননি। পাশপাশি সতীশ যোগ করেন, কাউকে ভালোবাসা যদি অপরাধ হয় তবে তার মূল্য দিতে প্রস্তুত রিয়া। প্রস্তুত গ্রেপ্তার হতেও।

এদিকে, শৌভিকের গ্রেপ্তারি নিয়ে মুখ খুলেছেন রিয়া-শৌভিকের বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী। তিনি বলেন, অভিনন্দন ভারত। আমার ছেলে গ্রেপ্তার হয়েছে। আমি নিশ্চিত এর পর আমার মেয়ের পালা। সুন্দরভাবে একটি মধ্যবিত্ত পরিবারকে ধ্বংস করে দিয়েছ তুমি। কিন্তু না, ‘ন্যায়বিচার’র জন্য তো সবই ঠিক।   
এদিকে, সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় মাদকে নাম জড়িয়েছে অনেকের। এরইমধ্যে সম্প্রতি মাদককা-ে গ্রেফতার হয়েছেন রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী, সুশান্তের বাড়ির ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা। এবার গ্রেফতার হল সুশান্তের বাবুর্চি দীপেশ। এই তিনজনসহ ৭ জনকে মাদকের মামলায় গ্রেফতার করেছে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো

শুক্রবার রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দীপেশ সাওয়ান্তকে ডেকে পাঠায় এনসিবি। সূত্রের খবর, দীপেশের বক্তব্যে বেশিরভাগেই ছিল অসঙ্গতি। দীপেশ যা যা বলেছেন, তার প্রায় কিছুই অন্যদের সঙ্গে মিলছে না। আর এরপরই দীপেশকে গ্রেফতার করে এনসিবি।

 এনসিবি বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘মাদককাণ্ডে এখনও পর্যন্ত ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩জন সৌভিক, জায়েদ ও মিরান্ডা এনসিবি’র হেফাজতে রয়েছে। এরপর দীপেশ সাওয়ান্তকে গ্রেফতার করা হল। শুক্রবার রাত ১০টায় দীপেশকে তদন্তের জন্য ডেকে আনা হয়েছিল। দীপেশ যা বলেছেন তার সঙ্গে সৌমিক, মিরান্ডা, জায়েদ, কাইজান, কারোর বক্তব্যই মিলছে না। দীপেশের বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। এনডিপিএস আইনের আওতায় যথেষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতেই গ্রেফতার করা হয়েছে দীপেশকে। রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় দীপেশকে আদালতে পেশ করা হবে। তবে এখনও পর্যন্ত আর কাউকে সমন পাঠানো হয়নি। এই মামলার তদন্ত এখনও চলছে।’


প্রসঙ্গত, শনিবারই আদালত মাদককা-ে সৌভিক ও মিরান্ডাকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, ৪ দিনের এনসিপি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে। এই মামলায় রিয়া চক্রবর্তীকেও এনসিবি ডেকে পাঠাতে পারে।সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!