December 3, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

সিসিক মেয়র আরিফ করোনামুক্ত, নতুন করে আক্রান্ত ৪৪

করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) মেয়র বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী।মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) তার নমুনা পরীক্ষার পর ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। রাতে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

১০ সেপ্টেম্বর সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমানের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

দীর্ঘ ১২ দিন হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেওয়ার পর মঙ্গলবার সকালে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নমুনা পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল জমা দেন। ওসমানী মেডিকেল কলেজ ল্যাবে মঙ্গলবার রাতে পরীক্ষার পর ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়ায় আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় ও তার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল ও শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেওয়ায় নগরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এক প্রতিক্রিয়ায় মেয়র বলেন, ‘সিলেটের মানুষের দোয়ায় আমি সুস্থ হয়ে উঠেছি। আমার এই বিপদের সময় মানুষ যেভাবে খোঁজখবর নিয়েছেন তা ভুলার নয়। অনেক মা-বোন আমার সুস্থতার জন্য কোরআন খতম করে ও রোজা রেখে দোয়া করেছেন। যা আমাকে নগরবাসীর প্রতি আরও দায়বদ্ধ করে তুলেছে’।

এদিকে, মঙ্গলবার সিলেটের দুই ল্যাবে নতুন করে আরও ৪৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন চিকিৎসক ও একজন ব্যাংকারও রয়েছেন।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি)’র জিইবি বিভাগের প্রভাষক জি এম নূরনবী আজাদ জুয়েল জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে মঙ্গলবার ২৭৯টি নমুনা পরীক্ষায় ৩১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সিলেটের ১৪ জন, সুনামগঞ্জের ৩ জন, হবিগঞ্জের ৬ জন ও মৌলভীবাজার জেলার ৮ জন রয়েছেন।

রাতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘ওসমানী মেডিকেল কলেজ ল্যাবে মঙ্গলবার নতুন করে ১৩ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে করোনা। আক্রান্তদের সবাই সিলেট জেলার বাসিন্দা। এর মধ্যে একজন চিকিৎসক ও একজন ব্যাংকার রয়েছেন’।

এ নিয়ে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৪২৩ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৬ হাজার ৭১৩, সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৩০৫, হবিগঞ্জে ১ হাজার ৭২৯ ও মৌলভীবাজার জেলায় ১ হাজার ৬৭৬ জন। এ অঞ্চলে করোনা আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৯২ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৬৬, সুনামগঞ্জে ৮, হবিগঞ্জে ৯ ও মৌলভীবাজারে ৯ জন।

এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার ৯৭৬ জন। এর মধ্যে সিলেটে ৫ হাজার ১৬৮, সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৩৫, হবিগঞ্জে ১ হাজার ২৬৯ ও মৌলভীবাজারে ১ হাজার ৫০৪ জন। আর বর্তমানে সিলেট বিভাগে সক্রিয় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী রয়েছেন ২ হাজার ১৯২ জন। বাকি ৯ হাজার ৯৭৬ জন সুস্থ ও করোনায় মারা গেছেন ২১১ জন।

error: Content is protected !!