সামাজিক দূরত্ব মানছেন না সৌদি প্রবাসীরা, ভয়ানক পরিণতির আশঙ্কা

৫ এপ্রিল জেদ্দায় কর্মহীন প্রবাসীদের মাঝে মানবিক সাহায্য বিতরণ

করোনাভাইরাসে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে প্রায় গোটা পৃথিবী। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাসা থেকে বের হতে পারছেনা। কিন্তু সৌদি আরবে থাকা প্রবাসীদের অনেকেই মানছেন না সামাজিক দূরত্ব রক্ষার এই জরুরি নিয়ম । নাম প্রকাশ না করার শর্তে সেখানে বাংলাদেশ দূতাবাসে কর্মরত একজন কর্মকর্তা এ খবর জানান।

” আত্নহত্যা করা কিংবা কাউকে হত্যা করা দুইই কবিরা গুনাহ (মহাপাপ) এ লোকগুলো বুঝতেছে না যে তারা কী করতেছে । তারা জেনে শুনে নিজের জীবনকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে প্রকারান্তরে যা আত্নহত্যারই শামিল । আবার লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব না মেনে তারা অন্যদের জীনকেও বিপদ্গ্রস্ত করে তুলছে।”

“তিনি বলেন কোনোভাবে যদি পরিবারের পক্ষ থেকে এ লোকগুলোকে বুঝানো যেত তাহলে বোধয়তার তারা শুনত। অন্যথ্যায় সৌদিতে আমাদের প্রবাসীদের অবস্থা দিন দিন ভয়াবহ পরিণতির দিকে যাচ্ছে।” তিনি জানান দাম্মাম এলাকায় দুজনের মধ্যে করোনার লক্ষ্মণ দেখা গিয়েছিল। কিন্তু শত চেষ্টা করেও তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো যায় নি।

সৌদি আরবে বাংলাদেশি প্রবাসী আছেন ২২লাখ। যাদের মধ্যে আছেন অনেক নারী প্রবাসীও। এই অবস্থায় বেকার হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ। সবচেয়ে বেশি সংকটে পড়েছেন অবৈধ এবং ফ্রিভিসাধারী প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তাদেরকে সাহায্য করতে বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই সাহায্যের জন্য যোগাযোগ করতে বলেছে। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন তাদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন।

সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী আগামী কয়েক সপ্তাহে সৌদি আরবে করোনা ভাইরাস ব্যপকভাবে বিস্তারের আশংকায় দেশটির নাগরিক ও বসবাসকারী বিদেশীদের দেশটির সকল আইন কঠোরভাবে মেনে চলার আহবান জানিয়েছে সৌদি রাজকীয় সরকার।

জরুরি অবস্থা বা লকডাউনে অবহেলা করায় ইতিমধ্যে নিউইয়র্কেও অনেক বাংলাদেশির জীবনাবসান হয়েছে। সৌদিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৪ হাজার লোক। মারা গেছেন ৫৯জন। আশংকা করা হচ্ছে, লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব যদি না মেনে চলেন তবে বাংলাদেশি প্রবাসীদের অবস্থা ভয়াবহ পরিণতির দিকে যাবে।

ঐ কর্মকর্তা আফসোস করেন বাংলাদেশে অবস্থানরত পরিবার থেকে যদি তাদের বুঝানো যেত তাহলে হয়ত তারা একটু সচেতন হতেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!