সব ভারতীয় নিউজ চ্যানেল ও মিডিয়া ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ

ভারতে টিকটকসহ চীনের ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পাল্টা পদক্ষেপ নিয়েছে চীন। ইতিমধ্যেই সব ভারতীয় নিউজ চ্যানেল এবং মিডিয়া ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে চীন। 

আগে ভিপিএনের মাধ্যমে ভারতীয় চ্যানেলগুলোর লাইভ টিভি দেখা সম্ভব হতো। কিন্তু গত দুই দিন ধরে ভিপিএনও ব্লক করে রেখেছে চীন। খবর নিউজ এইটিনের। বেইজিংয়ের ভারতীয় দূতাবাসের একটি সূত্র জানিয়েছে, বর্তমানে শুধু আইপি টিভির মাধ্যমে ভারতীয় টিভি চ্যানেলগুলো দেখা যাচ্ছে। 

নিষিদ্ধ কোনো ওয়েবসাইট ভিপিএনের মাধ্যমে দেখা যায়। কিন্তু ভিপিএন যাতে কাজ না করে তার জন্য অ্যাডভান্সড ফায়ারওয়াল তৈরি করেছে চীন। এর ফলে শুধু ভারতীয় ওয়েবসাইটই নয়, বিবিসি ও সিএনএনের মতো আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরও যাচাই বাছাই করে সম্প্রচারিত করছে চীন। যেমন হংকংয়ে চীন বিরোধী বিক্ষোভ সংক্রান্ত কোনো খবর এই গণমাধ্যমগুলোতে দেখানো হলেই ততক্ষণাৎ তা ব্লক আউট হয়ে যায়। চীন বিরোধী খবর দেখানো বন্ধ হওয়ার পরই ফের গণমাধ্যমগুলো দেখা যায়।

লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় এবং চীনের সেনাদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছিল। এরই মধ্যে সোমবার কেন্দ্রীয় সরকার ভারতীয়দের ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষা এবং দেশের নিরাপত্তার যুক্তি দিয়ে ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। ভারত সরকারের কথায় এই চীনা অ্যাপগুলোর সার্ভার ভারতের বাইরে রয়েছে। যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি করা হচ্ছে।

চীন সরকার এ বিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া না দিলেও দেশের গণমাধ্যমগুলোর মতে, যুক্তরাষ্ট্রের অনুকরণে ভারত সরকার এমন পদক্ষেপ নিয়েছে। এদিকে চীনের সরকারি গণমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস বলছে, ভারত সরকারের এই পদক্ষেপ আদতে ভারতীয় অর্থনীতিরই ক্ষতি করবে। কারণ ভবিষ্যতে তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে আর কোনো স্টার্টআপ সংস্থায় চীনা বিনিয়োগ আসবে না।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!