শিক্ষার্থীদের পদচারনায় মুখরিত উহানের স্কুল

মহমারি করোনাভাইরাসের আঁতুরঘর হল চীনের উহান। সেখান থেকেই আজ বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে কালো থাবা বসিয়েছে এই ভাইরাস।
আর করোনার উৎসস্থল উহান সচল হলেও স্কুলগুলো ছিল বন্ধ। বুধবার (৬ মে) থেকে সেই স্কুলগুলোও শিক্ষার্থীদের পদচারণে মুখর হয়ে উঠেছে। সামাজিক দূরত্ব বিধিসহ নানা সতর্কতা অবলম্বন করে শিক্ষার্থীরা ফিরেছে শ্রেণিকক্ষে।এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়েছে, প্রথম পর্বে গ্রেড নাইন ও গ্রেড টুয়েলভ-এর শিক্ষার্থীরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। পরে ধাপে ধাপে অন্য শিক্ষার্থীদেরও ক্লাস শুরু হবে। হুবেইপ্রদেশ কর্তৃপক্ষের বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, বুধবার ৫৭ হাজার ৮০০ শিক্ষার্থী স্কুলে যোগ দেয়। শহরের ১২১টি স্কুল এদিন খুলেছে। এর মধ্যে ৮৩টি হাইস্কুল এবং ৩৮টি কারিগরি স্কুল রয়েছে।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা স্কুলে প্রবেশের আগে তাদের শরীরের তাপমাত্রা মাপা হচ্ছে, হাত ধুয়ে নিচ্ছে এবং নিরাপদ দূরত্ব মানছে। বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের যে মহামারী দেখা দিয়েছে, এর শুরু হয়েছিল চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে। গোটা চীনে যতো মানুষ আক্রান্ত ও মৃত্যুবরণ করেছে, তার অধিকাংশই উহানের বাসিন্দা।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সেখানে প্রথম নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এর পর দ্রুত এর বিস্তার হলে চলতি বছর জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে উহানে লকডাউন শুরু হয়। তবে ভাইরাসের প্রকোপ কমে আসায় এপ্রিলের শুরুর দিক থেকে বিধিনিষেধ শিথিল হতে থাকে। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত নির্দেশনা অনুযায়ী হুবেইপ্রদেশের শিক্ষার্থীদের স্কুলে প্রবেশের আগে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করাতে হবে।

উল্লেখ্য, চীনে এ পর্যন্ত ৮২ হাজার ৮৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৬৩৩ জনের। উহানে গত ৩২ দিন নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!