December 3, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

লেবাননে আটকেপড়া আরও ৪১২ বাংলাদেশি দেশে ফিরেছে

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন বিমান চলাচল বন্ধ থাকার পর লেবানন থেকে ফিরেছে আটকেপড়া আরও ৪’শ ১২ জন বাংলাদেশি। বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইট বৃহস্পতিবার বৈরুতের রফিক হারিরি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়ন করে।

বিশেষ বিমানে ফিরতে পেরে আটকেপড়া বাংলাদেশিরা বাংলাদেশ সরকার ও বাংলাদেশ দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানিয়েছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে বিমান চলাচল বন্ধ থাকায় দীর্ঘদিন যাবত নিবন্ধিত বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার পথ বন্ধ ছিল।
বৈরুতস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মো. জাহাঙ্গীর আল মুস্তাহিদুর রহমানের উদ্যোগে বাংলাদেশ সরকার আটকেপড়া প্রবাসীদের ফিরিয়ে নিতে বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করে। বুধবার বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটের ৪১২ জন যাত্রীর হাতে জরিমানার অর্থসহ এয়ার টিকিট তুলে দেয় দূতাবাস।
গত কয়েকবছর ধরে লেবাননের আর্থ সামাজিক পরিস্থিতি বেশ খারাপ। করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব এই পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করেছে।

দেশটিতে অর্থনৈতিক মন্দা, ডলার সংকট ও করোনা পরিস্থিতিসহ খাদ্যদ্রব্যের কয়েকগুণ মূল্য বৃদ্ধির কারণে দেড় লাখ বাংলাদেশির জীবন জীবিকা হুমকির মুখে। পরিস্থিতি বাধ্য করছে অনেক বৈধ প্রবাসীকেই বাংলাদেশে ফিরে যেতে।
লেবাননে থাকা প্রায় দেড় লাখ বাংলাদেশী নাগরিকের অনেকেই অনিশ্চিত ও মানবেতর জীবনযাপন করছেন সেখানে।

লেবাননের বাংলাদেশ দূতালয় মনে করছে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। ভবিষ্যতে আবারো কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে লেবাননে।কিন্তু এখন যেসব বাংলাদেশি সেখানে চরম দুর্দশায় রয়েছেন, তাদের ফিরিয়ে আনা বা সহযোগিতার ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার কোনো উদ্যোগ বা পরিকল্পনা গ্রহণ করেনি।

error: Content is protected !!