লঞ্চের তলায ফাটল: অল্পের জন্য রক্ষা পেল দুই শতাধিক যাত্রী

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটের পদ্মাসেতুর চ্যানেলমুখে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে ড্রেজারের পাইপের সাথে ধাক্কা লেগে একটি লঞ্চের তলা ফেটে যায়। এ সময় মাস্টার লঞ্চটি চরে ঠেকিয়ে রাখে। পরে কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে অন্য লঞ্চ ও একটি ড্রেজার ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাত্রীদের উদ্ধার করে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) কাঁঠালবাড়ী লঞ্চঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, শিমুলিয়া ঘাট থেকে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার পর এমএল শ্রেষ্ঠ-২ নামের একটি লঞ্চ প্রায় দুইশ’ যাত্রী নিয়ে শিবচরের কাঁঠালবাড়ী ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। মূল নদী থেকে পদ্মাসেতুর চ্যানেলে ঢোকার সময় ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে লঞ্চটির তলা ফেটে যায়। এ অবস্থায় লঞ্চটির অর্ধেক ডুবে গিয়ে লঞ্চটি পদ্মাসেতুর চ্যানেলে আটকে যায়। এরপর জরুরি ভিত্তিতে পাশের চরে লঞ্চটি নোঙর করে রাখা হয়। খবর পেয়ে কাঁঠালবাড়ী ঘাট থেকে লঞ্চ পাঠানো হয় যাত্রীদের উদ্ধারে। তবে বিআইডব্লিউটিএ’র ‘টুইন জাহাজে’র মাধ্যমে সব যাত্রীকে উদ্ধার করে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে নিয়ে আসা হয়।

কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানিয়েছে, লঞ্চটিতে পানি উঠে অর্ধেক তলিয়ে আছে। তবে লঞ্চে থাকা যাত্রীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। দ্রুত চ্যানেলের পাশের চরে নোঙর করার কারণে বড় দুর্ঘটনা থেকে রেহাই পাওয়া গেছে।

বিআইডব্লিউটিএ’র কাঁঠালবাড়ী লঞ্চঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, তলা ফেটে বিকল হওয়া লঞ্চটির যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়েছে। কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!