লকডাউনের মধ্যে বিয়ে করতে ৮৫০ কি.মি. পাড়ি, কিন্তু

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে লকডাউন। যে কারণে বিয়েতে বাধা পড়ে সোনু কুমার চৌহানের (২৪)। কিন্তু বিয়ে তিনি করবেনই। তাই সাইকেলে চেপে হবু স্ত্রীর বাড়ির দিকে রওনা দেন। ৮৫০ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিয়ে ফেললেও মনের আশা পূরণ হলো না তার। কারণ, পুলিশ ধরে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছে তাকে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে। সনুর সঙ্গে তার তিন বন্ধুকেও কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, ১৫ এপ্রিল উত্তরপ্রদেশের এক তরুণীর সঙ্গে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল সোনুর। কিন্তু লকডাউনে আটকে পড়ে বিয়ে ভেঙে পিছিয়ে যায়। পারিবারিকভাবে সিদ্ধান্ত হয়, লকডাউন উঠে গেলেই বিয়ে সম্পন্ন হবে।

তবে টাইলস কারখানার কর্মী সনুর তর সইছিল না। তিন বন্ধুসহ সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়েন বিয়ে করার উদ্দেশে। পাঞ্জাবের লুধিয়ানা থেকে রওনা দিয়ে নানা প্রতিকূলতার মধ্যে প্রায় সপ্তাহখানেক সাইকেল চালিয়ে ৮৫০ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দেন।

কিন্তু গন্তব্যস্থল থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার আগে বাধ সাধল পুলিশ। সনু ও তার তিন বন্ধুকে আটক করে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। ১৪ দিন তাদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। এরপর সুস্থ হলে তাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!