রিয়াদে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ডেস্ক রিপোর্ট:

সৌদি আরবে আরবের রাজধানী রিয়াদে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীগোষ্ঠী।দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় ‘শায়বাহ’ তেলক্ষেত্রে এই হামলা চালানো হয়।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে সম্প্রতি সৌদি আরব যে রক্তক্ষয়ী বর্বর হামলা চালিয়েছে তার জবাবে ইয়েমেনিরা এই হামলা চালাল।

সৌদি আরবে অন্তত তিন দফা ক্ষেপণাস্ত্র হামলার খবর পাওয়া গেছে। রাজধানী রিয়াদ ও দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর জিজানে এসব হামলা চালানো হয়। শনিবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে তাদের দাবি, রিয়াদ এসব হামলা প্রতিহত করতে সমর্থ হয়েছে।

ইয়েমেনের আরবি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল আল-মাসিরা আজ মঙ্গলবার জানিয়েছে, সৌদি আরবের গভীর অভ্যন্তরে হামলার ব্যাপারে ইয়েমেনের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিস্তারিত তথ্য জানাবেন। এর আগে আজ দিনের প্রথম দিকে সৌদি আরবের মানবাধিকার কর্মীরা জানান, তারা রাজধানী রিয়াদের উত্তরে বিশাল বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পেয়েছেন।

সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট দাবি করেছে, তারা হুথি যোদ্ধাদের ছোঁড়া ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র সফলতার সাথে ধ্বংস করেছে। সৌদি জোটের মুখপাত্র কর্নেল তুর্কি আল-মালকি এ হামলাকে বেসামরিক জনগণ ও স্থাপনার বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত এবং ধারাবাহিক অভিযান বলে উল্লেখ করেন।

এর আগে তুর্কি আল-মালকি জানিয়েছেন, হুথি যোদ্ধারা সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে আরও একটি হামলা চালিয়েছে। তিনি দাবি করেন, সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট আটটি বোমাভর্তি ড্রোন ও তিনটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করেছে। ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ইয়েমেনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সা’দা প্রদেশ থেকে নাজরান ও জিজান অঞ্চল লক্ষ্য করে ছোঁড়া হয়।

প্রসঙ্গত, করোনাকালেও ইয়েমেনে হামলা চালিয়ে আসছে সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনী। তবে ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের জবাব দিতে মাঝেমধ্যেই দেশটিকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে থাকে হুথি বিদ্রোহীরা। ২০১৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকোর দুটি বৃহৎ তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালানো হয়। এতে সৌদি আরবের তেল উৎপাদন অর্ধেকে নেমে আসে। হুথি বিদ্রোহীরা ওই হামলার দায় স্বীকার করে। যদিও ওই হামলায় ইরানকে দায়ী করে ওয়াশিংটন ও রিয়াদ। ওই ঘটনার জেরে সৌদি ও আমিরাতে আরও সেনা মোতায়েনের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!