যে কারণে সাকিব এখন চাল-ডালের পাইকারি আড়তদার!

আর মাত্র মাস খানেক পরই আইসিসির নিষেধাজ্ঞামুক্ত হচ্ছেন সাকিব আল হাসান। এরপরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারবেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। সবার জানা, ক্রিকেটে ফেরার জন্য বিকেএসপিএত নিবিড় অনুশীলনে ব্যস্ত সাকিব। এমনকি সেখানে কি ধরনের অনুশীলন করছেন, সেটা পর্যন্ত জানা যাচ্ছে না। নিজে তো বটেই সাকিবের দুই কোচ সালাউদ্দিন এবং নাজমুল আবেদিন ফাহিমও মুখে কুলুপ এঁটে বসে আছেন।

ভক্তদের প্রত্যাশা, হয়তো সাকিব আল হাসান নিজেই তার অনুশীলনের ছবি প্রকাশ করবেন নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে। ভক্ত-সমর্থকরা লাইক আর কমেন্টসের বন্যায় ভাসিয়ে দেবেন সেই ছবি। কিন্তু আইসিসির নিষেধাজ্ঞার কারণে সাকিব কি করছেন, তার ছিঁটেফোটাও বাইরের কাউকে জানতে দিচ্ছেন না। পাছে না আবার ভিন্ন কোনো সমস্যা হয়ে যায়!

কিন্তু, ভক্তদের হতাশ করে সাকিব এমন এক ছবি নিজের ফেসবকু পেজে প্রকাশ করলেন, তা দেখে তো সবাই অবাক। একি ছবি প্রকাশ করলেন সাকিব? মাঠে খেলা কিংবা অনুশীলনের কোনো ছবি নয়, নিজের কোনো সেলফি-টেলফিও নয়, কিংবা স্ত্রী-কন্যার ছবিও নয়, সাকিব প্রকাশ করলেন কি না এমন এক ছবি, তা দেখে ভক্ত-সমর্থকরা কিছুটা হতাশ হওয়ার পাশাপাশি মজাও পেয়েছে।

প্রকাশিত ছবিতে সাকিবকে দেখা যাচ্ছে যেন তিনি একজন ধান-চাল-ডালের আড়ৎদার। ছোট সিন্ধুকের মত একটি ডেস্ক নিয়ে আড়তে হাসিমুখে বসে আছেন সাকিব। দেখেই মনে হচ্ছে যেন একজন পুরোপুরি পাইকারি ব্যবসায়ী। পাশে ছোট একটা টুলের ওপর রাখা চাল-ডাল-বাদামের স্যাম্পল। হাতে ধরা কলম দিয়ে কিছু লিখছেন। অন্য হাতের প্রতিটি আঙ্গুলে একটি করে আঙটি এবং একটি ঘড়ি। গায়ে জড়ানো সাদা রঙয়ের একটি ফতুয়া। মাথার চুলগুলো পেছনে দিকে একটু লম্বা। তার অন্যপাশে পুরনো দিনের একটি টেপ রেকর্ডার এবং সারি করে সাজানো কিছু বস্তা।

হাসিমাখা মুখটা দেখেই মনে হচ্ছে, সাকিব একজন সুখি পাইকারি ব্যবসায়ী। কাস্টোমারের কোনো অর্ডার লিখছিলেন হয়তো। এমন সময় ক্যামেরার দিকে মুখ ফিরিয়ে একটু হাসি দিলেন। তখনই ক্লিক। উঠে গেলো ছবিটা।

সাকিব নিজেই তার ফেসবুক পেজে পোস্ট করেছেন ছবিটি। তবে কোনো ক্যাপশন দেননি। যদিও এরই মধ্যে ভক্তরা সবাই ধরে নিয়েছে, নিশ্চিত কোনো বিজ্ঞাপনের দৃশ্যে শ্যুটিং করতে গিয়েই এখানে ক্যামেরাবন্দী হয়েছেন তিনি।

ঢাকাইয়া কুট্টির সাজে সাকিব আল হাসান। সহজ বাংলায় পুরান ঢাকার একজন ব্যবসায়ী। বেশ ভালোভাবেই চলছিল তার এ ব্যবসা। মেসার্স এস টু এস ট্রেডার্সের মালিক সাকিব। হঠাৎ করে আশেপাশের মানুষের কথা শুনে বিনিয়োগ করেন শেয়ারবাজারে। কিছু না জেনে না বুঝে বিনিয়োগ করার ফলে বড় অঙ্কের লসের মুখ দেখতে হয় সাকিবকে। কীভাবে বিনিয়োগ করলে লসের মুখ দেখবেন না-এই শিক্ষা দিতেই ঢাকাইয়া কুট্টির সাজে দেখা যাবে সাবেক বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে সাকিব আল হাসান একটি ছবি প্রকাশ করেন। সাদা ফতুয়ার সঙ্গে সাদা লুঙ্গি, দুই হাতের আঙুলে হরেক রকম আংটি আর হাতে কলম, সামনে খাতা নিয়ে হাসি মুখে পোজ দিচ্ছেন। পাশের টেবিলে রাখা ছোট বাটিতে চাল-ডালের নমুনা (স্যাম্পল)। এই ছবি মুহুর্তেই ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে।

শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে কেউ রাতারাতি বনে যান কোটিপতি আবার কেউ মূলধন হারিয়ে বসে যান মাটিতে। নানা মানুষের নানা কথায় ভুল জায়াগায় ভুলভাবে বিনিয়োগ করার কারণেই হয় করূণ দশা। কোনো ব্যবসায়ী যাতে মানুষের কথায় ভুল জায়াগায় ভুলভাবে বিনিয়োগ না করে টিভি কমার্শিয়ালের (টিভিসি) মাধ্যমে সেই শিক্ষা দেবেন সাকিব। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে মূলধন বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সরকারি সংগঠন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) হয়ে এবার কাজ করেছেন তিনি।

এই টিভিসির পরিচালক সাকিবের বাল্য বন্ধু ও পরিচালক মাহাদী শাওন। মুঠোফোনে বিস্তারিত জানিয়েছেন টিভিসি-টি সম্পর্কে। শাওনের ভাষায় এটি অত্যন্ত এক্সক্লুসিভ কাজ। তিনি বলেন, ‘না জেনে না বুঝে কেউ যাতে শেয়ারবাজারে টাকা বিনিয়োগ না করে বিএসইসি বিনিয়োগকারীদের সেই প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। কীভাবে বিনিয়োগ করলে লাভের মুখ দেখা যাবে সেটাও শিখিয়ে দেওয়া হয়। আমরা টিভিসিতে দেখিয়েছি ঢাকাইয়া কুট্টি সাকিব মানুষের কথা শুনে ভুলভাবে বিনিয়োগ করে লস করে। পরে বিএসইসির এই প্রশিক্ষণ থেকে শিক্ষা নিয়ে সে লাভের মুখ দেখে।’

টিভিসির এই দৃশ্যধারণে দুদিন অংশ নেন সাকিব। গতকাল তার অংশের দৃশ্যধারণ শেষ হয়। আজ শনিবার বাকি অংশগুলোর দৃশ্যধারণ করা হবে। সাকিবের দৃশ্যধারণ হয় রাজধানীর মিরপুর বেড়িবাধ এলাকায় অবস্থিত প্রিয়াংকা কালচারাল ইনস্টিটিউটে।

শাওন জানান, সরকারি এই বিজ্ঞাপণের কাজ করার কথা ছিল গত মার্চে। কিন্তু লকডাউনের কারণে কাজ বন্ধ হয়ে যায়।আগামী মাসের (অক্টোবরের) শেষের দিকে এটা দেখা যাবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!