November 27, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

যুক্তরাজ্যে করোনা মোকাবিলায় আগামী দুই সপ্তাহ খুবই গুরুত্বপূর্ণ

করোনা মহামারি মোকাবিলায় যুক্তরাজ্যে আগামী দুই সপ্তাহ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এমন সতর্কবার্তা দিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। ব্রিটিশ অধ্যাপক সুসান মিশি বলেন, সরকার ঘোষিত লকডাউন উঠে যেতে পারে ২ ডিসেম্বর। তাই এই সময়টা সবাইকে কঠোর বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। এমনকি এই সময়ের মধ্যে করোনার ভ্যাকসিন আসলেও মেনে চলতে হবে করোনা শিষ্টাচার। তা না হলে মহামারি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে বলে শঙ্কা জানানো হয়।

এদিকে সংক্রমণ বাড়তে থাকায় নতুন করে লকডাউন দিয়েছে লেবানন। বাড়ানো হয়েছে রাত্রিকালীন কারফিউ।

এছাড়া প্রত্যেক নাগরিককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে গ্রিস সরকার। আর লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে ইতালি, পর্তুগাল ও জার্মানিতে।

এদিকে, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে এখনো বিপর্যস্ত পৃথিবী। এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ কোটি ৪৩ লাখ ১৮ হাজার ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৩ লাখ ১৮ হাজার।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, রোববার (১৫ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৪৪ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৪৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৪১ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ কোটি ৭৮ লাখ ৬৬ হাজার ৮৯১ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৫১ হাজার ২৫৬ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। বিশ্বের ক্ষমতাধর এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ১২ লাখ ২৬ হাজার ৩৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮ লাখ ১৪ হাজার ৯০২ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ২৯ হাজার ৬৭৪ জন।

error: Content is protected !!