যুক্তরাজ্যে ওপেন হার্ট সার্জারির পর করোনার সঙ্গে লড়ছে ছয় মাসের শিশু

হাসপাতালে অক্সিজেনের মোটা নল মুখে নিয়ে শুয়ে থাকা এক হৃদয়বিদারক ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বয়স মাত্র ছয় মাস। এরই মধ্যে হয়েছে ওপেন হার্ট সার্জারির মতো ঝুঁকিপূর্ণ অস্ত্রোপচার। জীবন যুদ্ধে তখন জয়ী হয়ে এখন লড়ছে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে। বলছিলাম
যুক্তরাজ্যের আল্ডার হে শিশু হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে থাকা ফুটফুটে শিশু এরিনের কথা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়, বিয়ের ১০ বছর পরে ওয়েন ও এমা বেটস দম্পতির ঘর আলোকিত করে পৃথিবীতে আসে এরিন। কিন্তু জন্মের পরপরই হৃদযন্ত্রের সমস্যা ধরা পড়ায় করতে হয় ওপেন হার্ট সার্জারি। এবার আবারও একই লড়াই লড়তে হচ্ছে ভয়ংকর করোনাভাইরাসের কারণে।

হাসপাতালে সন্তানের পাশে মাত্র একজন থাকার নিয়মের কারণে বাড়িতে ফিরে যেতে হয়েছে বাবা ওয়েন বেটসকে (৩২)। আর লিভারপুলের শিশু হাসপাতালে এরিনের পাশে থাকছেন তার মা এমা বেটস (২৯)। তবে বাড়ি গেলেও করোনা আক্রান্ত সন্তানের সংস্পর্শে আসায় ওয়েনকেও হোম-আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।

এ দম্পতির বিশ্বাস, এত অল্প সময়েই অনেক বড় বড় রোগের সেঙ্গে লড়াই করে মৃত্যুমুখ থেকে ফিরে এসেছে এরিন। এবার করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়েও জয়ী হবে তাদের সাহসী সন্তান।

আর এর জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়ে এমা বেটস বলেন, ‘দয়া করে সবাই এরিনের জন্য দোয়া করবেন। আমরা ভাইরাসের কারণে তাকে হারাতে চাই না। সে এরইমধ্যে অনেক লড়াই করে এসেছে।’

এমা বলেন, ‘আশা করি যারা ভাইরাসটিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন না, তারা এই লেখাটি পড়বেন আর বিষয়টি বুঝতে পারবেন।’

এতকিছুর পরেও এরিনকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সদের প্রাণান্ত চেষ্টার কথা বলতে ভোলেননি তার বাবা-মা। এজন্য সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন এ দম্পতি । পাশাপাশি, সাধারণ মানুষদেরও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!