যাতে কারও সমস্যা না হয়, তাই মাস্ক পরে ঘুরছি: করোনা রোগী

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগী বাইরে বাইরে ঘুরছিলেন । এ খবর জানতে পেরে প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞেস করা হলে ওই রোগী জানান, যাতে অন্য কারও সমস্যা না হয়, তাই আক্রান্ত অবস্থাতেও মাস্ক পরে ঘুরছেন। পরে পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) পরিয়ে তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলা শহরের লিটল ব্রিজ এলাকায় আজ বুধবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটে। পরে তাকে রাণীনগর উপজলোর বিলপালশায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তিনি উপজেলার খাগড়া গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে বাড়িতেই অবস্থান করছেন তিনি।রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জহুরুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ওই ব্যক্তি গাজীপুরে থাকতেন। কয়েকদিন আগে বাড়িতে আসেন তিনি। পরে গ্রামবাসীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে স্বাস্থ্য বিভাগ তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠায়। এরপর তাকে বাড়িতেই থাকার জন্য বলা হয় তাকে।বুধবার সকাল ৯টার দিকে জেলার করোনাভাইরাস আক্রান্তদের পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার পর স্বাস্থ্য বিভাগ ও প্রশাসন আক্রান্তদের খোঁজ-খবর নিতে শুরু করে। ওই ব্যক্তির খোঁজ নেওয়া হলে তাকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। এদিকে তার অবস্থানের বিষয়টি নিশ্চিত না হতে পরে পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ।

পরে প্রযুক্তির সহায়তায় নওগাঁ সদরে তাকে খুঁজে পাওয়া যায়। তিনি শুধু মাস্ক পরে বাইরে বাইরে ঘুরছিলেন। রাণীনগর থানার ওসি জানান, ওই ব্যক্তির বাড়ি ও শ্বশুড়বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। এ ছাড়া গত মঙ্গলবার রাতে তার স্ত্রী সন্তান প্রসব করেন। সদ্যজাত শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে নওগাঁর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে তাকে ভর্তি করা হয়। স্ত্রী-সন্তানসহ ওই হাসপাতালে যাওয়ায় সেটিও লকডাউন করা হয়েছে।

নওগাঁ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দি হোসেন বলেন, “খবর পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় শহরের লিটল ব্রিজ থেকে করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি আমাদের বলেন, আমি মাস্ক পরে বাইরে ঘুরছি যাতে কারও সমস্যা না হয়। পরে তাকে পিপিই পরিয়ে তাকে সরকারি অ্যাম্বুলেন্সে করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. আ.ম. আখতারুজ্জামান আলাল বলেন, ‘করোনাভাইরাস পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়ার পর দ্রুত পুলিশকে জানানো হয়। বর্তমানে ওই ব্যক্তিকে হোমকোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে এবং তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদেরও তথ্য নেওয়া শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!