মার্কিন নির্বাচনপূর্ব বিতর্কে বাইডেনের ‘ইনশাআল্লাহ’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনপূর্ব বিতর্কে মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) অংশ নিয়েছিলেন রিপাবলিকান প্রার্থী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেনে। বিতর্ক অনুষ্ঠানে ডেমোক্রেট প্রার্থী বাইডেন ট্রাম্পকে খোঁচ দিতে ‘ইনশাআল্লাহ’ উচ্চারণ করেছিলেন। তার এই উক্তি নিয়ে টুইটারে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।

বিবিসি জানায়, মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে হোয়াইট হাউসের ইতিহাসে অন্যতম বিশৃঙ্খল ও বিদ্বেষপূর্ণ বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন এ দুই প্রার্থী।
দুই প্রার্থীই এক জন আরেকজনের বিরুদ্ধে কাদা ছোড়াছুড়ি করেছেন।
বাইডেন তার বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এ পর্যন্ত তার আয়কর রিটার্ন দাখিল করেছেন কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ক্রিস ওয়ালেস এই রিটার্নের তথ্য প্রকাশের জন্য ট্রাম্পকে নির্দিষ্ট সময়সীমা ঘোষণার জন্য চাপ দেন।

জবাবে ট্রাম্প বলেন, ‘আপনি এটা দেখতে পাবেন।’

বাইডেন তখন জানতে চান, ‘কখন? ইনশাআল্লাহ?’

সোমবার নিউ ইয়র্ক টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, গত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছরই ট্রাম্প আয়কর দেননি। তিনি ২০১৬ সালে মাত্র ৭৫০ ডলার এবং ২০১৭ সালে একই পরিমাণ অর্থ আয়কর হিসেবে দিয়েছেন।

আল-জাজিরা জানিয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বাইডেনের এই ইনশাআল্লাহ বলা নিয়ে কেউ কেউ রসিকতা করেছেন।

সিরাজ হাশমি নামে এক জন লিখেছেন , ‘জো বাইডেন : ইনশাআল্লাহ, হাবিবি, এটা ঘটছে….’

জয়নব নামে এক জন লিখেছেন, ‘বাইডেন কি এইমাত্র ইনশাআল্লাহ বললেন? আমি চিৎকার করছি।’

কেউ কেউ অবশ্য এটাকে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ঐতিহাসিক মুহূর্ত বলে মন্তব্য করেছেন।

হামিদ আলিয়াজিজ নামে এক জন লিখেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ঐতিহাসিক মুহূর্ত, প্রেসিডেন্ট বিতর্কে ইনশাআল্লাহ!’

আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রথমবারের মতো বিতর্কে মুখোমুখি হন রিপাবলিকান প্রার্থী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!