‘মানব পাচারকারীর’ ব্যাংকে  ৪ কোটি টাকার সন্ধান

মরক্কো ও লিবিয়ায় মানব পাচারকারী চক্রের অন্যতম হোতা সোহাগ হোসেনের সহযোগীর ব্যাংক হিসাবে ৪ কোটি টাকা পাওয়া গেছে। ওই সহযোগীর নাম কবির হোসেন (৪০)। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) সোমবার (২৯ জুন ) ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানিয়েছে।

গ্রেপ্তার কবির হোসেনের বাড়ি নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায়। সিআইডির সংঘবদ্ধ অপরাধ দমন বিভাগের একটি দল কবিরকে গ্রেপ্তারের পর আদালতে হাজির করে। কবির ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

স্বীকারোক্তিতে কবির হোসেন জানান, ২০১৩ সাল থেকে তিনি সোহাগের সহযোগী হিসেবে কাজ করছেন। লিবিয়া ও মরক্কো পাঠানোর নাম করে তিনি বিদেশ যেতে ইচ্ছুক লোকজনের কাছ থেকে ৪ কোটি টাকা নিয়েছেন। আসামির স্বীকারোক্তি অনুযায়ী সোহাগ হোসেন ও তার অন্য সহযোগীরা লিবিয়ায় মানব পাচারের বিনিময়ে টাকা নিয়েছেন।

গত ২৮ মে লিবিয়ায় মানব পাচারকারী চক্র ও তাদের সহযোগীদের গুলিতে ২৬ জন বাংলাদেশি নিহত ও ১১ জন আহত হন।

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানায়, এই ঘটনায় ২৬টি মামলায় প্রায় ৩০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। সিআইডি ছাড়াও মানবপাচারকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে থানা-পুলিশ, র‌্যাব ও ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এ পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৬০ জনকে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!