মহা দুশ্চিন্তায় গ্রোসারি স্টাফরা

করোনাভাইরাস কোভিড ১৯ এর প্রাদুর্ভাবে সবাই যখন ঘরে লকডাউনে, তখন বাহিরে শুধু রোগী এবং ডাক্তার। আর আরেকটি শ্রেণির মানুষ যারা কোনো দিন হয়তো ভাবতেও পারেন নি এতো ঝুঁকিপূর্ণ হবে তাদের কাজ। তারা হলো মুদি দোকান আর সুপারশপের স্টাফ।

হ্যাঁ সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত রোগিদের মধ্যে আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে মুদি দোকানের স্টাফদের সংখ্যা। ওয়াশিংটন পোস্টে প্রকাশিত খবরে জানা যায় এ যাবত প্রায় ১৮০০ গ্রোসারি স্টোর স্টাফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

করোনাভাইরাস যেহেতু একটি ছোঁয়াচে রোগ যা আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি কিংবা যেকোনো বস্তুর উপর থেকে স্পর্শের মাধ্যমে একজন সুস্থ ব্যক্তিকে সংক্রমিত করে। আর মুদি দোকান হল এক্ষেত্রে ভয়ের জায়গা। কারণ শপিং কার্ট থেকে শুরু করে বিভিন্ন শেল্ফের জিনিসপত্র গুছানো, রেজিস্টারে টাকা গুণা প্রত্যেকটি ধাপে ধাপেই রয়েছে করোনাভাইরাস কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হওয়ার আতঙ্ক।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!