মডার্নার ভ্যাকসিন মার্কিন নির্বাচনের আগে বাজারে আসছে না

আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে চলা মার্কিন নির্বাচনের পূর্বে ভ্যাকসিন আনার সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়ে দিয়েছে মডার্না থেরাপিউটিকস। বুধবার প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টেফানি ব্যান্সেল জানান, ২৫ নভেম্বরের পূর্বে কোনোভাবেই করোনার ভ্যাকসিন পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প অবশ্য চাইছিলেন ৩রা নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই যাতে ভ্যাকসিন চলে আসে। এতে করে নির্বাচনে সুবিধা পাবেন বলে আশা ছিল তার। তবে মডার্নার সাম্প্রতিক ঘোষণায় তার সেই আশা জোরেশোরেই ধাক্কা খেলো।

ব্যান্সেল জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের ‘ফুড এন্ড ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন’ বা এফডিএ থেকে থেকে অনুমোদন নিতে হবে বাজারে ভ্যাকসিন ছাড়ার পূর্বে। জরুরি ভিত্তিতে এর অনুমোদনের আবেদন করলেও তা অনুমোদিত হতে কমপক্ষে ২৫ নভেম্বর লাগবে। এই সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা সম্পর্কৃত যেসকল তথ্যপ্রমাণ তারা পাবেন তা ‘ইমার্জেন্সি ইউজ অথরাইজেশন’ বা ইইউএ-র কাছে পাঠাবেন। তবে এ প্রক্রিয়াও আগামী বছরের মার্চ মাসের পূর্বে তা বাজারে আনা সম্ভব হবে না।

করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিনকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহারের চেষ্টা করেছেন ডনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি গত মঙ্গলবারের বিতর্কেও তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনকে বলেন, ১লা নভেম্বরের পূর্বেই ভ্যাকসিন চলে আসতে পারে আমাদের হাতে। কিন্তু মডার্নার এ ঘোষণায় সেই আশায় গুড়োবালি পড়লো। মার্কিন প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের বিষয়টিও স্পষ্ট করেছেন ব্যান্সেল। তিনি জানান, ভ্যাকসিন অনুমোদনের পূর্বে এফডিএ-র কিছু শর্ত তাদের মানতে হয়। এরমধ্যে রয়েছে, যাঁদের ওপর সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের পরীক্ষা চালানো হচ্ছে তাদের মধ্যে অন্তত অর্ধেককে দু’মাস নজরদারির মধ্যে রাখতে হবে। সে সময়সীমা মেনেই ১লা নভেম্বরের আগে টিকা আনা সম্ভব হবে না বলে জানান ব্যান্সেল।

উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে সম্ভাব্য ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দৌড়ে এগিয়ে আছে অন্তত ১১টি ভ্যাকসিন। এরমধ্যে প্রথমদিকেই রয়েছে মডার্না। সূত্র: রয়টার্স।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!