November 24, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

ভিসার মেয়াদ বাড়া‌তে আজও সৌ‌দি দূতাবা‌সে প্রবাসীদের ভিড়

বাংলাদেশে ছুটিতে এসে করোনায় আটকেপড়া প্রবাসীকর্মীরা রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) ভোর থে‌কেই ভিসার মেয়াদ বাড়া‌তে ভিড় কর‌ছেন গুলশা‌নের সৌ‌দি দূতাবা‌সে। সেখা‌নে এখ‌নো কর্মীর ভিড় র‌য়ে‌ছে। যেসব প্রবাসী শ্রমিক সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে ফিরেছেন এবং ২১ মার্চ সৌদিতে ফেরার কথা তাদের জন্য বিশেষ ফ্লাইটের টিকিট বিক্রি করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে টিকিট দেয়া শুরু হয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর বিশেষ ফ্লাইটে জেদ্দায় নিয়ে যাওয়া হবে তাদের। ২৬ সেপ্টেম্বর ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানায় বিমান। ২১ মার্চের যাত্রী ছাড়া অন্যদের ভিড় না করার অনুরোধও করা হয় ওয়েবসাইটের তথ্যে।

তবে বিমানের বার্তা না দেখেই গত ৪ দিনের ধারাবাহিকতায় রোববার সকাল থেকে মতিঝিলের বক চত্বরের সামনে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ করছে প্রবাসীরা। অনেকে জোরপূর্বক বিমানের অফিসে প্রবেশের চেষ্টা করলেও পরবর্তীতে পুলিশি বাধায় তাদের ঠেকানো হয়।

রোববার ভোর ৭টা থেকে প্রবাসীরা বিমান অফিসের বাইরে অবস্থান নিয়ে দফায় দফায় বিক্ষোভ করছে। তারা বলছেন, ভিসার মেয়াদের ভিত্তিতে প্লেনের টিকিট বিক্রি করতে হবে।

কিন্তু দূতবা‌সে ভিসার মেয়াদ বৃ‌দ্ধি সংক্রান্ত আ‌বেদন জমা নেওয়া হয় না। দূতাবা‌সের নি‌র্দেশনায় বলা হ‌য়ে‌ছে, অনু‌মো‌দিত সা‌র্ভিস সেন্টা‌রে নতুন ভিসা ইস‌্যু, মেয়াদ বৃ‌দ্ধি ও বা‌তি‌লের আ‌বেদন গ্রহণ করা হয়। দূতাবা‌সের ও‌য়েবসাই‌টে ৩১টি অনু‌মো‌দিত সা‌র্ভিস সেন্টা‌রের তা‌লিকা দেওয়া আ‌ছে। ভিসা সংক্রান্ত বিষ‌য়ে সেখা‌নে যোগা‌যোগ কর‌তে বলা হ‌য়ে‌ছে।

সৌদি কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন একাধিকবার জানিয়েছেন, আটকেপড়া কর্মীদের আকামা (কাজের অনুমতি) ২৪ দিন বাড়বে। ভিসার মেয়াদ ও কাজে ফেরার সময়সীমা (এক্সিট রি-এন্ট্রি) বাড়াতে সম্মত হয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে এখন পর্যন্ত সৌদির তরফ থেকে এ-সংক্রান্ত সরকারি ঘোষণা না আসায় অনিশ্চয়তায় ভুগছেন আটকেপড়া কর্মীরা। এখনও তাদের অনলাইনে দেখানো হচ্ছে কাজে ফেরার শেষ সময় ৩০ সেপ্টেম্বর।

করোনার লকডাউন শুরুর আগে দেশে ফেরা প্রায় ৮০ হাজার সৌদিপ্রবাসীর মধ্যে ৩৫ হাজার ফিরেছেন সৌদি এয়ারলাইন্সের ফিরতি টিকিট নিয়ে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে টিকিটের জন্য তারা এই বিমান সংস্থার কার্যালয়ের সামনে ভিড় করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত দুই হাজার ৪০০ কর্মীকে টোকেন দেওয়া হয়েছে, যাদের পর্যায়ক্রমে টিকিট রি-ইস্যু করা হবে। শনিবার ৮০১ থেকে ১২০০ নম্বর পর্যন্ত টোকেনধারীদের টিকিট দেওয়া হয়। রোববার দেওয়া হবে ১৫০০ পর্যন্ত। ৪ অক্টোবর থেকে নতুন টোকেন দেওয়া হবে।

error: Content is protected !!