ভারতে সাম্প্রদায়িক ঘৃণা ছড়িয়ে যাচ্ছে বিজেপি : সোনিয়া

গোটা বিশ্ব যখন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে নাস্তানাবুদ, তখন ভারতে বিজেপি তার চেয়েও ভয়ংকর ‘সাম্প্রদায়িকতার ভাইরাস’ ছড়াচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী।

বৃহস্পতিবার দেশটির কট্টর হিন্দুত্ববাদী শাসক দলকে এ ভাবেই আক্রমণ করেন তিনি।

করোনা মোকাবিলায় দলের কী ভূমিকা হওয়া উচিত তা নিয়ে নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন এ কংগ্রেস নেত্রী। সেখানেই করোনা প্রসঙ্গ তুলে বিজেপিকে এক হাত নেন তিনি।

সোনিয়া বলেন, যখন করোনা নিয়ে সবাই একজোট হয়ে লড়াই করা উচিত, সেখানে বিজেপি সাম্প্রদায়িক ঘৃণা ছড়িয়ে যাচ্ছে। যা সমাজ ও দেশের পক্ষে ভয়ঙ্কর।

ভারতের প্রত্যেক নাগরিক এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত। তিনি আরও বলেন, বিজেপি সমাজের ঐক্য নষ্ট করছে। কিন্তু সমাজের সেই ক্ষতি পূরণের চেষ্টা করছে আমাদের দল।

সোনিয়া গান্ধী দেশে করোনার সংক্রমণ নিয়ে মোদি সরকারের ভূমিকারও তীব্র সমালোচনা করেছেন। সেই সঙ্গে লকডাউন নিয়েও প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তিনি।

এ কংগ্রেস নেত্রীর অভিযোগ, করোনার মোকাবিলায় সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, এই সমস্যা দূর করার জন্য বেশ কয়কেটি প্রস্তাবও দিয়েছিলেন। কিন্তু তার ওই প্রস্তাব মোদি সরকার খুব একটা আমলে নেয়নি বলেও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন সোনিয়া ।

লকডাউনে কৃষক ও প্রান্তিক শ্রমিকদের সমস্যার প্রসঙ্গও তুলে ধরে সোনিয়া গান্ধী বলেন, কৃষক, খেতমজুর, পরিযায়ী শ্রমিক ও নির্মাণ শ্রমিকরা খুব দুর্দশার মধ্যে রয়েছেন। ব্যাবসা, বাণিজ্য ও শিল্প সব কিছু থমকে গেছে। কয়েক কোটি মানুষের জীবন আজ বিপন্ন।

৩ মে লকডাউন উঠে গেলে কী ভাবে পরিস্থিতি সামলানো হবে তা নিয়ে সরকারের কাছে স্পষ্ট পরিকল্পনা নেই বলেও অভিযোগ করেছেন সোনিয়া।

করোনার টেস্ট নিয়েও সরকারকে আক্রমণ করেন কংগ্রেস নেত্রী। তার অভিযোগ, পরীক্ষা কম হচ্ছে। টেস্ট কিট নিম্নমানের। পর্যাপ্ত সংখ্যায় টেস্ট কিট সরবরাহ করা হচ্ছে না। শুধু তাই নয়, যারা করোনার মোকাবিলা করছেন তাদের সুরক্ষার বর্মও নিম্নমানের।

এই সঙ্কটময় মুহূর্তে কংগ্রেস সস্তার রাজনীতি করছে বলে পাল্টা আক্রমণ করেছে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেন, আমরা সাম্প্রদায়িক বিভাজন সৃষ্টি করছি না। আমরা একজোট হয়ে করোনার মোকাবিলা করছি। কংগ্রেসের কাছে অনুরোধ তারা যেন সস্তার রাজনীতি না করেন।
বুকারজয়ী উপন্যাসিক ও ভারতীয় বুদ্ধিজীবী অরুন্ধতী রায় বলেছেন, মুসলিমদের গণহত্যার পথে হাঁটছে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ভারত সরকার। জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এই দাবি করেছেন।

এর আগে সোনিয়ার মতো একই অভিযোগ তোলেন বুকারজয়ী উপন্যাসিক ও ভারতীয় বুদ্ধিজীবী অরুন্ধতী রায়। অরুন্ধতী রায় বলেন, নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংস্থার (আরএসএস) সদস্য, এটি বিজেপির মূল সংগঠন। তারা দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছে ভারতের হিন্দু রাষ্ট্র হওয়া উচিত। মুসলিমদের প্রতি তাদের চিন্তাভাবনা ইহুদিদের প্রতি নাৎসদের চিন্তার সঙ্গে মিলে যায়। তারা কোভিডকে মুসলিমদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে, এটিও ইহুদিদের বিরুদ্ধে টাইফাস রোগকে ব্যবহারের সঙ্গে মিলে যায়।

অরুন্ধতী রায় আরও বলেন, সরকারকে কিছু বলার নেই। তবে ভারত ও বিশ্বের জনগণকে আমি বলতে পারি, এই পরিস্থিতিকে হালকাভাবে নেওয়ার সুযোগ নেই। সত্যিকার অর্থে পরিস্থিতি গণহত্যার দিকে যাচ্ছে। সরকারের এজেন্ডাও তাই ছিল।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!