ভারতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বেড়ে যাওয়ায় ওআইসি’র নিন্দা

করোনাভাইস পরিস্থিতিতে ভারতের মুসলমানদের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা ওআইসি’র মানবাধিকার কমিশন। ভারতের গণমাধ্যমগুলোতে নেতিবাচক প্রচারণার কারণে মুসলমানরা বৈষম্য ও সহিংসতার স্বীকার হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

কমিশন এক বিবৃতিতে ভারতে ইসলামভীতি ছড়ানো এবং করোনা ভাইরাস বিস্তারে মুসলমানদেরকে দায়ী করার চেষ্টাকে লজ্জাজনক হিসেবে অভিহিত করে সেদেশে মুসলমানদের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য নয়া দিল্লির প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা সাম্প্রতিক দিনগুলোতে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নিয়ে মুসলমানদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং দেশের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে মুসলমানদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। গত ফেব্রুয়ারিতে রাজধানী দিল্লিতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের ভয়াবহ সহিংসতায় ৫৪জন মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ওআইসি’র মানবাধিকার কমিশনের বিবৃতিতে এও বলা হয়েছে, বিজেপি সরকার গত গ্রীষ্মে জম্মু কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন কেড়ে নেয়ার পর একের পর এক এমন সব বিতর্কিত পদক্ষেপ নিচ্ছে যা মুসলমানদের জন্য চিন্তার কারণ।

ভারত সরকার গত আগস্টে কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন কেড়ে নেয়ার পর দেশের মুসলমানদের ওপর প্রচণ্ড চাপ সৃষ্টি করেছে। জাতিসংঘসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর নিষ্ক্রিয়তার কারণে ভারতের কর্মকর্তাদের উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ড অব্যাহত রয়েছে। ভারত সরকার গত গ্রীষ্ম থেকে সেদেশের বিভিন্ন এলাকায় মুসলমানদের বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালনে বাধা দিয়ে আসছে যা কিনা ধর্মীয় স্বাধীনতার লঙ্ঘন এবং সব ধর্মের অধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক আইনের খেলাপ।

ভারতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৈষম্যের আরেকটি দৃষ্টান্ত হচ্ছে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন। এ আইনে মুসলমান বাদে অন্য ধর্মের অনুসারী অভিবাসীদেরকে নাগরিকত্ব দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ভারতের মুসলমানরা প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ। ভারতের অন্য রাজনৈতিক দলও বিজেপি সরকারের নাগরিকত্ব আইনের তীব্র সমালোচনা করেছে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে বিভিন্ন শহরে মুসলমানদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ করা হয়েছে। মুসলমানদের অধিকারের প্রতি সমর্থন এখন উস্কানিতে পরিণত হয়েছে। ভারতের বিজেপি সরকার মুসলমানদের অধিকার পদদলিত এবং উস্কানিমূলক পদক্ষেপ নেয়ায় উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ও হত্যাকাণ্ড চালাচ্ছে।

এ অবস্থায় উগ্র হিন্দুদের হামলা থেকে ভারতের মুসলমানদের অধিকার রক্ষায় দেশটির সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে বলে ওআইসি প্রত্যাশা করছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!