ভারতে করোনার র‌্যাপিড টেস্ট বাতিল

করোনার র‌্যাপিড টেস্ট বাতিল করেছে ভারত। ভুল ফল পাওয়া যাওয়ায় সব রাজ্যকে র‌্যাপিড টেস্ট আগামী দু’দিন স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির মেডিক্যাল গবেষণার প্রধান প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)।

ইতোমধ্যে যেসব কিট ব্যবহার করে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে, সেসব কিট মানসম্মত কিনা তা যাচাই করার জন্য আইসিএমআরের কর্মকর্তাদের পাঠানো হচ্ছে। এছাড়া ত্রুটিপূর্ণ র‌্যাপিড টেস্ট কিটস শনাক্ত করার পর সেগুলো উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের কাছে ফেরত পাঠানো হবে।

আইসিএমআরের প্রধান রমন আর গঙ্গাখেড়কার বলেন, পজিটিভ নমুনাগুলোতে নানা ধরনের ভিন্নতা দেখা যাচ্ছে এবং এগুলোর তদন্ত দরকার। কিছু কিছু টেস্টে করোনার ভুল ফলও পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো করোনার র‌্যাপিড টেস্ট কিট ব্যবহার শুরু করেন ভারতীয় চিকিৎসকরা। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বারবার বলছে, র‌্যাপিড টেস্ট শুধুমাত্র নজরদারি এবং মহামারির গতি-প্রকৃতি বোঝার জন্য ব্যবহার করা উচিত।

উল্লেখ্য, ভারতে মঙ্গলবার পর্যন্ত ৪ লাখ ৬২ হাজার ৬২১ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ হিসাবে শনাক্ত হয়েছেন ২০ হাজার ১৭৮ জন এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৪৫ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন আরও ৩ হাজার ৯৭৬ জন। দেশটিতে চলছে লকডাউন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!