ভারতের বাজার ধরতে জিওর শেয়ার কিনল ফেসবুক

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানি ফেসবুক ভারতের মোবাইল ইন্টারনেট কোম্পানি রিলায়েন্স জিওর ৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ কিনে নিয়েছে । ৫৭০ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে দ্রুত বর্ধনশীল টেলিযোগাযোগ কোম্পানি জিওর শেয়ার কেনার মাধ্যমে ভারতের বাজারে ফেসবুকের পদযাত্রা শুরু হলো।

জিআইও’ র ৯৯.৯৯ শতাংশ মালিকানা কিনবে ফেসবুক। ৪৩ হাজার ৫৭৪ কোটি  টাকায় ভারতের বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানির শেয়ার কিনবে মার্কিন সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিটি। শীঘ্রই হোয়াটস অ্যাপ-এর পেমেন্ট সার্ভিস নিয়ে আসতে চলেছে ফেসবুক।

ভারতে এই পেমেন্ট সার্ভিস লঞ্চ হলে সম্পূর্ণ ফায়দা তুলতেই জিআইও-র শেয়ার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্ক জাকারবার্গের কোম্পানি। ফেসবুক এর সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পরে ভারতের টেলিকম দুনিয়ায়  জেআইও’র এক নম্বর স্থান আরও শক্ত হবে। বুধবার এক বিবৃতিতে জিআইও জানিয়েছে, এই মুহূর্তে কোম্পানির বাজারমূল্য প্রায় ৬৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (প্রায় ৫ লক্ষ কোটি টাকা)।

পোস্টে জুকারবার্গ উল্লেখ করেছেন, এই বিনিয়োগ ফেসবুকের ম্যাসেজিং মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ আর রিল্যায়েন্স ইনডাস্ট্রির ই-কমার্স ক্ষেত্র জিও মার্টের পারস্পরিক বোঝাপড়ার ক্ষেত্র তৈরি করবে। আমরা একটা আর্থিক বিনিয়োগের পরিসর তৈরি করলাম।এর ফলে ফেসবুক আর জিও, একটা টিম হিসেবে কাজ করবে। আমাদের মূল লক্ষ্য ভারতের মানুষের জন্য বাণিজ্যের পরিসর আরও বাড়িয়ে দেওয়া। 

পোস্টে তিনি উল্লেখ করেন, ভারতে অধিকাংশ মানুষ ফেসবুক আর হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। পাশাপাশি সে দেশে বাস করেন অনেক প্রতিভাবান উদ্যোগপতি। ভারতে এখন ডিজিটাল রূপান্তর চলছে। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে লক্ষাধিক ক্ষুদ্র শিল্প মাধ্যমকে এক ছাতার তলায় আনতে সমর্থ হয়েছে জিওর মতো সংস্থা। 

ভারতে ডিজিটাল পেমেন্ট লঞ্চের শেষ ধাপের অনুমতির জন্য অপেক্ষা করছে হোয়াটস অ্যাপ। ইতিমধ্যেই ডিজিটাল পেমেন্টের বাজারে ভারতে রয়েছে গুগল পে, ফোন পে, মতো জনপ্রিয় কোম্পানিগুলি। ফেসবুক এর পক্ষ তরফ থেকে জানানো হয়েছে বিটা ভার্সানের পরে এখনও সব গ্রাহকের কাছে এই ফিচার পৌঁছে দেওয়ার অনুমতি মেলেনি।

ভারতে প্রায় ৪০ কোটি গ্রাহক  হোয়াটস অ্যাপে ব্যবহার করেন। এটাই গোটা বিশ্বে হোয়াটস অ্যাপ এর সবথেকে বড় বাজার। ভারতের স্মার্টফোন গ্রাহকদের ৮০ শতাংশ নিয়মিত এই মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করেন। এছাড়াও সম্প্রতিই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম লঞ্চ করেছিল জিআইও। হোয়াটস অ্যাপে -এর মাধ্যমে ছোট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে জিআইও মার্টকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে।

ভারত এক বড়সড় ডিজিটাল পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই কাজে ভারতের ছোট ব্যবসায়ীদের অনলাইনে ব্যবসা করতে বড় ভূমিকা নিয়েছে জেআইও। বলেন ফেসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ।

গত বছর সেপ্টেম্বরে জেআইও-র মোট ঋণের পরিমাণ ছিল ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (প্রায় ৩ লক্ষ কোটি টাকা)। ফেসবুকের সঙ্গে চুক্তির পরে ঋণ শোধ করতে সুবিধা হবে মুকেশ আম্বানির কোম্পানির।

লঞ্চের মাত্র তিন বছরের মধ্যে দেশের এক নম্বর টেলিকম কোম্পানির শিরোপা ছিনিয়ে নিয়েছিল জেআইও। পরে ধীরে ধীরে রিটেল ব্যবসা শুরু করেছিল কোম্পানিটি। ইতিমধ্যেই দেশে ১০ হাজারের বেশি রিটেল স্টোর থেকে বিভিন্ন প্রোডাক্ট বিক্রি করে মুম্বাইয়ের কোম্পানিটি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!