ভারতকে চাপে ফেলতে নতুন চাল পাকিস্তানের

ডেস্ক রিপোর্ট:

চীন সীমান্তের লাদাখে উত্তেজনায় গত ১৫ জুন ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়। এ নিয়ে উত্তেজনা রয়েই গেছে দুই দেশের মধ্যে। নেপালের সাথেও এখন বৈরি সম্পর্ক ভারতের।এ অবস্থায় ভারতকে আরও চাপে ফেলতে নতুন চাল দিল পাকিস্তান৷ 

সূত্রের খবর অনুযায়ী, গত কয়েকদিনে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর সেনা মোতায়েন অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান৷ ভারত যখন একদিকে চীনকে সামলাতে ব্যস্ত, তখন নিজেদের সীমান্তেও সেনা বাড়িয়ে ভারতীয় সেনার উপর চাপ আরও বৃদ্ধির চেষ্টা করছে ইসলামাবাদ৷

জানা গেছে, রাওয়ালপিণ্ডি, লাহোর, মুলতান, অ্যাবোটাবাদ, ফয়সালাবাদের সেনা ঘাঁটি থেকে বাহিনীকে এনে নিয়ন্ত্রণরেখায় বরাবর মোতায়েন করতে শুরু করেছে পাকিস্তান৷

গত ৭ জুন থেকে ১৫টি অতিরিক্ত ব্যাটেলিয়নের সেনাদের ভারতের কুপওয়ারা এবং পুঞ্চ সীমান্ত বরাবর মোতায়েন করেছে পাকিস্তান৷ ২৮ নম্বর পাকিস্তান রাইফেল রেজিমেন্টকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে তিন নম্বর রেজিমেন্টের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে৷ আর ৯ নম্বর আজাদ কাশ্মীর রেজিমেন্টকে রাওলাকোটে সেকেন্ড রেজিমেন্টের সঙ্গে জুড়ে দেয়া হয়েছে৷ এর পাশাপাশি নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর আরও একাধিক জায়গায় বাহিনীর সঙ্গে অতিরিক্ত সেনা জুড়ে দিয়েছে পাকিস্তান। 

এর পাশাপাশি রাওয়ালপিণ্ডি থেকে এসএসজি-র দু’টি রেজিমেন্টকেও নিয়ন্ত্রণরেখায় নিয়ে আসা হয়েছে৷ এই বাহিনীর সব জওয়ানেরই স্নাইপার প্রশিক্ষণ রয়েছে৷ নিয়ন্ত্রণরেখায় পাক অধিকৃত কাশ্মীরের অন্তত ষাটটি ফরওয়ার্ড পজিশনে জওয়ানদের পাঠানো হয়েছে৷ তার সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে এসএসজি-কে৷

সূত্রের দাবি, অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনের পর থেকেই গত কয়েকদিন ধরে পাকিস্তানের দিক থেকে লাগাতার সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করা হচ্ছে৷ যাতে সেই সুযোগে জঙ্গিরা ভারতে অনুপ্রবেশ করতে পারে৷ 

সূত্রের খবর অনুযায়ী গত এক মাসে ভারতীয় সেনার পাল্টা জবাবে ২৩ জন পাক সেনার মৃত্যু হয়েছে৷ অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছে৷ পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সমস্ত সরকারি হাসপাতালগুলিতে সেনা জওয়ানদের জন্য রক্ত এবং বেডের ব্যবস্থা তৈরি রাখতে বলা হয়েছে৷ সূত্র: নিউজ এইটিন। 
 

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!