বিশ্বে করোনার রাজত্বের প্রায় ২০০ দিন পূর্তি

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯  নতুন এক ভাইরাস, কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিষয় ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে’ আনুষ্ঠানিকভাবে জানায় চীন। এরপর এই ৭ মাসে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে এই ভাইরাসের বিস্তার ঘটেছে দ্রুত গতিতে।

 এই করোনা মানুষের জীবন থেকে কেড়ে নিয়েছে অনেক আপনজনকে, যার কষ্ট যারা বেঁচে থাকবেন তাদের ভুলবার কথা নয়।  ডিসেম্বর, ২০১৯ থেকে ২ জুলাই, ২০২০  পর্যন্ত  প্রায় ২০০ দিনের ব্যবদানে সারা বিশ্বে কোভিড-১৯ টেস্টের আওতায় প্রমানিত আক্রান্তের সংখ্যা জানা গেছে মোট ১,০৬,৬৫,৭৫৮ জন এবং ৫,১৫,৯৭৩ জন মারা গেছেন,এর মধ্যে বর্তমানে আক্রান্ত হয়ে আছেন,২৩,৪২,৮৩৯ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং বিভিন্ন উৎসের সম্পূর্ণ হিসেবের তালিকা থেকে সংকিপ্ত আকারে এর একটি ধারণা নীচের ছকে তুলে ধরার চেষ্টা করা হলো।

এশিয়ামোট আক্রান্তমৃতের সংখ্যানতুন আক্রান্ত
চীন৮৪,৮১৬১৭,৮৩৪৩৫৮
আফগানিস্তান৩১,৮৩৬     ৭৭৪৪,৯,৬২
বাহরাইন২৭,৪১৪    ৯২৭,৪৫৩
বাংলাদেশ১,৪৯,২৫৮১,৮৮৮৫০,৭৬৯
ভারত৬,০৪,৬৪১১৭,৮৩৪২,৩৭৬৯৫
ইন্দোনেশিয়া৫৭,৭৭০২,৯৩৪১৬,৩৩৯
ইরান২,৩০,২১১১০,৯৫৮৩৫১৬০
ইরাক৫১,৫২৪২,০৫০২৭২৭০
পাকিস্তান২,১৭,৮০৯৪,৪৭৩৫৭,৬৯১
ইজারাইল২৬,২৫৭৩২২৬,৩৬৩
জাপান১৮,৮৭৪৯৭৫১,২০৬
কুয়েত৪৬,৯৪০৩৫৮৯,৪০৭
তুরস্ক২,০১,০৯৮৫,১৫০১৮,৩৭১
ভিয়েতনাম৩৫৫২০

এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে দুটি দেশ, দেশগুলি হচ্ছে টিমোর লেস্ট, ভুটান। টিমুর লেস্টে মাত্র ২৪ জন আক্রান্ত হয়েছিল কেউই মারা যায় নি এখন দেশটি করোনা মুক্ত, ভূটানে মোট আক্রান্ত ৭৭ জন কেউ মারা যায়নি নতুন আক্রান্ত ১০ জন।

ইউরোপমোট আক্রান্তমৃতের সংখ্যানতুন আক্রান্ত
ইটালি২,৪০,৭৬০৩৪,৭৮৮৩,০৮০
ফ্রান্স১,৬৫,৭১৯২৯,৮৬১৭,৫৪৫
জার্মান১,৯৫,২২৮৮,৯৯৪৬,৯৬১
স্পেন১,৪৯,৬৫৯২৮,৩৬৩৪,৩৯১
যুক্তরাজ্য৩,১৩,৪৮৩৪৩,৯০৬১৪২৩২
রাশিয়া৬,৫৪,৪০৫৯,৫৩৬১,০১,১০৪
সুইডেন৬৯,৬৯২৫,৩৭০১৫,১৩০
বেলজিয়াম৬১,৫৯৮৯,৭৬১১,০৮৯
বেলারুশ৬২,৪২৪৩৯৮৬,৩৯২
নেদারল্যান্ড৫০,৩৩৫৬,১১৫১,১৩১
ইউক্রেন৪৪,৯৯৮১,১৭৩১১,৭৬৪
পর্তুগাল৪২,৪৫৪১,৫৭৯৪,০৭৪
পোল্যান্ড৩৪,৭৭৫১,৪৭৭৪,০৭৪

ইউরোপীয় দেশগুলির মধ্যে লিচেনস্টেইন, হলি-সী এবং ফেরোই আইল্যান্ড সবচেয়ে নিরাপদজনক অবস্থানে রয়েছে। এর মধ্যে হোলি-সীতে ১২ জন আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি এবং দেশটি এখন করোনামুক্ত। ফেরোই আইল্যান্ড এ ১৮৭ জন আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি এখন করোনামুক্ত। লিচেনস্টেইন ৮৩ জন আক্রন্ত ১ জন মারা যায় এখন করোনামুক্ত।

ওশেনিয়ামোট আক্রান্তমৃতের সংখ্যানতুন আক্রান্ত
অস্ট্রেলিয়া৭,৯২০১০৪৫৫০
নিউজিল্যান্ড১,১৮০২২২৩
গোয়াম২৮০৮৮

ওশেনিয়ার দেশগুলোর মধ্যে যেসব দেশ সর্বনিম্নে আছে তার মধ্যে, ফিজিতে ১৮ জন আক্রান্ত হয়েছিল কেউ মারা যায় নি বর্তমানে  করোনামুক্ত, নিউ ক্যালেন্ডোনিয়াতে ২১ জন আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি এখন করোনামুক্ত। পাপুয়া নিউগিনিতে ১১ জন আক্রান্ত হলেও কেউ মারা যায় নি নতুন আক্রান্ত ৩ জন।

দক্ষিন ও উত্তর আমেরিকামোট আক্রান্তমৃতের সংখ্যানতুন আক্রান্ত
আর্জেন্টিনা৬৭,১৮৪১,৩৫১৩১,৬৪৫
ব্রাজিল১৪,৪৮,৭৫৩৬০,৬৩২৪,৯৩,৩৭৬
কানাডা১,০৪,১৯৩৮,৫৯১৪,৩৫১
চিলি ২,৮২,০৪৩৫,৭৫৩৬১,৪১৫
কলোম্বিয়া১,০২,০০৯৩,৪৭০৪৪,৯৬৩
মেক্সিকো২,৩১,৭৭০২৮,৫১০৭১,৯৭৭
পেরু২,৮৮,৪৭৭৯,৮৬০৪৭,৫৬৯
যুক্তরাষ্ট্র২৬,৮৬,৪৮০১,২৮,০৬২৫,২৩,১৯০

সমগ্র আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে এ্যাঙ্গুইলা দেশটিতে তিনজন আক্রান্ত হয়েছিলেন মৃত্য সংখ্যা শুণ্য এখন করোনামুক্ত। বনাইরেতে ৭ জন আক্রান্ত মৃত্যু শুন্য, করোনামুক্ত। ফোকল্যান্ড, গ্রীনল্যান্ড এই দেশগুলোতে ১৩ করে আক্রান্ত হন মৃত্যু শুন্য এবং করোনাশুন্য। ব্রিটিশ-ভারজিন-আইসল্যান্ডে ৮ আক্রান্ত ১ জনের মৃত্যু এখন করোনা শূন্য।

আফ্রিকামোট আক্রান্তমৃতের সংখ্যানতুন আক্রান্ত
দক্ষিন আফ্রিকা১,৫৯,৩৩৩২,৭৪৯৭৮,৯২১
নাইজেরিয়া২৬,৪৮৪৬০৩৮,৭৪৯
মিশর৬৯,৮১৪৩,০৩৪২০,৫৯৫
আলজেরিয়া ১৪,২৭২৯২০৩,০০৪
মরক্কো১২,৬৩৬২২৮৩,৬৩৯

আফ্রিকার সবগুলো দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন আক্রান্তের সংখ্যা সিসিলিতে ১১ জন আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি এবং করোনামুক্ত এখন।

উপরোক্ত তালিকা সমুহে যেসব দেশে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত, মৃত্যু এবং বর্তমানে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা রয়েছে, এবং সর্বনিম্ন সংখ্যার উপর তৈরি করা হয়েছ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং অন্যান্য উৎস থকে নেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দেখা গেলো,  বিশ্বের অনেক দেশই এখন প্রায় করোনামুক্ত, আবার যুক্তরাষ্টুসহ কোন কোন দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে এখনো।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!