বাবার মৃত্যুতে আবেগী পোস্টে যা বললেন প্রণব কন্যা

সাবেক রাষ্ট্রপতি এবং ভারতের কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা প্রণব মুখোপাধ্যায় মারা গেছেন। সোমবার (৩১ আগস্ট) স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।
৬০ বছরের রাজনৈতিক জীবনে ভারতের পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, যোগাযোগ, অর্থসহ গুরুত্বপূর্ণ অনেক মন্ত্রণালয় সামলেছেন তিনি। ভারত-মার্কিন অসামরিক পরমাণু চুক্তি সই বৈদেশিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে তার অন্যতম অর্জন।

তাঁর মৃত্যুতে টুইটারে আবেগী পোস্টে শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায় লিখেছেন, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের কন্যা হয়ে জন্মে আমি গর্বিত।

টুইটারে শর্মিষ্ঠা লিখলেন, বাবা সারা জীবন দেশের সেবা করে গিয়েছেন। মানুষের সেবা করেছেন। তোমার মেয়ে হতে পেরে আমি ভাগ্যবান ও আশীর্বাদধন্য৷ বাবা তোমার প্রিয় কবিতা, সবারে প্রণাম করে যাই।

গত ১০ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তির পর ধরা পড়ে, তিনি করোনা আক্রান্তও হয়েছেন। সেই অবস্থাতেই ওই দিন রাতে দীর্ঘ অস্ত্রোপচার হয়। তারপর থেকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল প্রণববাবুকে। অস্ত্রোপচারের আগে, নিজের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর টুইট করে জানিয়েছিলেন নিজেই। সেটাই ছিল প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষ টুইট।

২০০৪ সালে যখন কংগ্রেসের নেতৃত্বে ইউপিএ ক্ষমতায় এল, সে বার প্রণববাবু প্রথমবার লোকসভা আসনে জয়লাভ করেন৷ এরপর ২০১২ সাল পর্যন্ত ইউপিএ সরকারের দু নম্বর জায়গায় ছিলেন প্রণব। প্রতিরক্ষা, বিদেশ, অর্থ মন্ত্রকের মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক সামলেছেন।

২০১২ সালে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ইউপিএ-র মনোনীত প্রার্থী ছিলেন তিনি৷ আরেক প্রার্থী পিএ সাংমাকে হারিয়ে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৯ সালে ভারত রতœ সম্মানে ভূষিত হন। মঙ্গলবার দিল্লিতে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী, কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরেণ্য রাজনীতিবিদ প্রণব মুখার্জির মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!