বাঙালি তরুণী অক্সফোর্ডের করোনার ভ্যাকসিন গবেষক দলে

কোভিড ১৯ এর আক্রমণ যেন এক রণক্ষেত্র। পরাস্ত হচ্ছে সমগ্র বিশ্ব। প্রতিদিন আমাদের আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি ভাইরাসটির বিরুদ্ধে লড়াই করা ভ্যাকসিন। তবে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির যে গবেষক দল করোনার টিকা আবিষ্কারের অনেকটা কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন, সেই দলের অন্যতম একজন কলকাতার বাঙালি তরুণী চন্দ্রা দত্ত।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, অক্সফোর্ডে বসবাসকারী ৩৪ বছরের চন্দ্রা কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন। করোনা ভ্যাকসিন টিমের সঙ্গে কাজ করতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত বোধ করছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার মানব শরীরে পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে এই ভ্যাকসিন। হিউম্যান ট্রায়ালে উত্তীর্ণ হয়ে গেলে এই ভ্যাকসিন আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে জনসাধারণের জন্য পাওয়া যাবে।

কলকাতার গলফ গার্ডেনের বাসিন্দা চন্দ্রা গোখলে মেমোরিয়াল গার্লস স্কুলে পড়াশোনা করেছেন। তারপর হেরিটেজ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। ২০০৯ সালে বায়োটেকনোলজিতে এমএসসি পড়তে যুক্তরাজ্যে চলে যান এই বাঙালি তরুণী ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!