November 29, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার


বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার। তিনি ২০১৮ সালের ১৩ নভেম্বর শপথ গ্রহণ করেন। তিনি ঢাকায় সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকেটের স্থলাভিষিক্ত হন। এর আগে তিনি ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আফ্রিকার দেশ বতসোয়ানা প্রজাতন্ত্রে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেছেন। 

মিলার ১৯৮৭ সালে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরে যোগদান করেন। ২০০০ সাল থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত তিনি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে জ্যেষ্ঠ আঞ্চলিক নিরাপত্তা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮ সাল থেকে ২০১১ পর্যন্ত ভারতের নয়াদিল্লিতে আঞ্চলিক নিরাপত্তা কর্মকর্তা (আরএসও) হিসেবে, ২০০৭ সাল থেকে ২০০৮ পর্যন্ত ইরাকের বাগদাদে এবং ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায় ২০০৪ সাল থেকে ২০০৭ পর্যন্ত কাজ করেন। কনসাল জেনারেল হিসেবে মিলার দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গে ২০১১ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। ঢাকার মার্কিন দূতাবাসে নিযুক্ত হওয়ার পূর্বে তিনি ২০১৪ সাল থেকে বতসোয়ানায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। (উইকিপিডিয়া)

মিলার ১৯৮১ সালে ব্যাচলর অব আর্টস পড়াশোনা করেছেন বিখ্যাত মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। ইউএস মেরিন কর্পস কমান্ড এবং স্টাফ কলেজ থেকে ১৯৯৪ সালে স্নতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

যুক্তরাষ্ট্র সরকারের অসংখ্য সম্মানে তিনি ভূষিত হয়েছেন, যার মধ্যে আছে বীরত্বের জন্য পররাষ্ট্র দপ্তর পুরস্কার ও ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের শিল্ড অব ব্রেভারি পুরস্কার।  রাষ্ট্রদূত মিলার ফ্রেঞ্চ, স্প্যানিশ ও ইন্দোনেশিয়ান ভাষা জানেন।

বাংলাদেশে কাজ করার সুযোগ পেয়ে রাষ্ট্রদূত মিলার সম্মানিত বোধ করছেন, এটি এমন এক দেশ বিশ্বজুড়ে যা উন্নয়নে সাফল্যের এক সুপরিচিত দৃষ্টান্ত হয়ে উঠেছে, সম্ভাবনা ও সুযোগের ক্ষেত্রে এক গুরুত্বপূর্ণ দেশ, যেটি আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক পর্যায়ে আরো বড় ভূমিকা পালন করতে যাচ্ছে এবং যেটি যুক্তরাষ্ট্রের এক জোরালো ও গুরুত্বপূর্ণ অংশিদার।

error: Content is protected !!