বাংলাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে মিশিগানে স্টেটে প্রবাসীদের মানববন্ধন

স্বামীকে বেঁধে রেখে সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাসে স্ত্রীকে ধর্ষণসহ বাংলাদেশে সাম্প্রতিক এমন ঘটনার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান স্টেটে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার বিকেল ৫টার দিকে বাংলা টাউনখ্যাত হেমট্রামিক সিটির কর্নান্টে এক ঘণ্টার এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। ক্ষুদ্ধ সচেতন বাংলাদেশি প্রবাসীদের ব্যানারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্লেকার্ড-ফেস্টুন হাতে রাস্তার পাশে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অংশ নেন অনেকে।

প্রবাসীদের কেউ কেউ চলন্তগাড়ি আটকিয়ে হাতনেড়ে মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করতে দেখা গেছে। প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন লাল মিয়া লালু ও সঞ্চালক ছিলেন প্রবাসী সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা কামাল।

এ সময় বক্তব্য দেন হেমট্রামিক সিটির বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কাউন্সিলম্যান মো. কামরুল হাসান, এমসি কলেজের সাবেক ছাত্রনেতা খন্দকার ইউসূফ কামাল, প্রবাসী সাংবাদিক সেলিম আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অব মিশিগানের সহ-আহ্বায়ক মো. মঈনুল হক।

এছাড়া সমাজকর্মী মিসবাউর চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বশির উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা মনজুরুল করিম তুহিন, সমাজকর্মী নাজেল হুদা, ব্যবসায়ী নেতা আরমানি আসাদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ ও খাগড়াছড়ির ধর্ষণের ঘটনা আমাদের মারাত্মক মর্মাহত করেছে। মানবিক এই বিপর্যয়ে আমাদের বিবেককে নাড়া দিয়েছে। আমরা দেশের প্রত্যেকটি ধর্ষণের ঘটনার সঠিক তদন্তক্রমে সুবিচার চাই।

দ্রুত বিচার কার্যক্রম চালু করে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান বক্তারা। এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণে নেপথ্যে গডফাদারদেরও আইনের আওতায় এনে ভবিষ্যতে ঐতিহ্যবাহি ক্যাম্পাসকে নিরাপদ রাখার দাবি জানান।

এ ঘটনার বিরুদ্ধে সিলেটের মেয়র আরিফুল হকের ভূমিকাসহ খুব দ্রুততার সঙ্গে ধর্ষকদের গ্রেফতার করায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের প্রশংসা করেন প্রবাসীরা ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!