বাংলাদেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৭, শনাক্ত ২২০২

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ৫১৬ জনের।নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ২০২ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ২৭ হাজার ৩৫৯ জনে।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ২৯৮ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ২৪ হাজার ৫৩৭ জন।

এতে আরও বলা হয়, সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯৩টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৫ হাজার ৪৮৮টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৪১২টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৬ লাখ ৪৪ হাজার ৭২৪টি।

বিজ্ঞপ্তিতে নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ২৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৬৮ দশমিক ৬০ শতাংশ ও শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩৮ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩৭ জনের মধ্যে ৩০ জন পুরুষ ও নারী সাত জন। এদের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিভাগে ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ছয় জন, খুলনা বিভাগে তিন জন, রাজশাহী বিভাগে দুই জন, সিলেট বিভাগে চার জন, রংপুর বিভাগে সাত জন। এছাড়া বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে এক জন করে দুই জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালেই মারা গেছেন ৩১ জন ও বাড়িতে ছয় জন।
মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ২১ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে নয় জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুই জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুই জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিন জন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৪৩৪ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৮৯৭ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৭৪ হাজার ৭৭০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৫৫ হাজার ৫৯৯ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ১৭১ জন বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
এর একদিন আগে রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) আরও ১ হাজার ৫৯২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আরও ৩২ জন।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৯৩ হাজার ১২০ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৭৩ লাখ ৪৬৩ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ কোটি ৩৭ লাখ ২ হাজার ৫৬৩জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ১ লাখ ৯৩ হাজার ২৫৩ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এ নিয়ে ৬৪ লাখ ৬০ হাজার ৪২১ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭১ হাজার ৭১১ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ লাখ ০৮ হাজার ৬৪৫ জন। আর মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। আর আক্রান্তের সংখ্যায় ব্রাজিল বিশ্বে তৃতীয়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ লাখ ৩৭ হাজার ৬০৬ জন। এবং এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৮৬ জন। আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ১০ লাখ ৩০ হাজার ৬৯০ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১৭ হাজার ৮৭১ জন।
গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!