বাংলাদেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩২ মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৯২

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ৪৭৯ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ৫৯২ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ২৫ হাজার ১৫৭ জনে।

রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ৪২৩ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ২১ হাজার ২৭৫ জন। সারা দেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯৩টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১১ হাজার ২২৪টি। আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ৩৫৪টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৬ লাখ ২৯ হাজার ৩১২টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৬৮ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩৮ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩২ জনের মধ্যে ২৫ জন পুরুষ ও নারী সাত জন। এদের মধ্যে রয়েছেন ঢাকা বিভাগে ১৭ জন, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগে চার জন করে আট জন, রাজশাহী বিভাগে দুই জন, সিলেট বিভাগে তিন জন। এছাড়া বরিশাল ও রংপুর বিভাগে এক জন করে দুই জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালেই মারা গেছেন ২৯ জন ও বাড়িতে তিন জন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ১৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে নয় জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চার জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুই জন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৩৯২ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৫৮১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৭৪ হাজার ৩৩৬ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৫৪ হাজার ৭০২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ৬৩৪ জন বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৮৩ হাজার ৭৪২ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৭০ লাখ ৬৬ হাজার ৪৯ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯ কোটি ১৬ লাখ ৬ হাজার ৮০১ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ১ লাখ ৯২ হাজার ৮১৮ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এ নিয়ে ৬৪ লাখ ৩১ হাজার ১৫২ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

আর আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ লাখ ২৩ হাজার জন। এবং এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ২৬ হাজার ২৩০ জন।

করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭০ হাজার ৬৭৯ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ লাখ ১৩ হাজার ৮১১ জন।

করোনায় মৃতের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৭ হাজার ৩২৬ জন। আর এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ২৯ হাজার ৪০৯ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ১০ লাখ ২০ হাজার ৩১০ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১৭ হাজার ৭৫৯ জন।

সুস্থতার দিক থেকেও প্রথম অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (৩৭ লাখ ৭ হাজার জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (৩২ লাখ ৯৬ হাজার ৭০২ জন), এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত (৩১ লাখ ৮০ হাজার ৮৬৫ জন)।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!