December 4, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

বাংলদেশে করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯৫০

বাংলদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ হাজার ৩১৬ জনে। এছাড়া নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরও ১ হাজার ৯৫০ জনের দেহে। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলো ৩ লাখ ১৪ হাজার ৯৪৬ জন করোনা রোগী।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে করোনাভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংস্থার অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন আরও ৩ হাজার ২৯০ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৮ হাজার ১৭৭ জন।

এতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৬৬ দশমিক ১০ শতাংশ ও শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩৭ শতাংশ।
এতে আরও জানানো হয়, সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯২টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১১ হাজার ৯৮১টি। আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ২০৯টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৫ লাখ ৬২ হাজার ৪১২টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৬১৯ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৬৩৪ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৭১ হাজার ৯৬৩ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৫২ হাজার ২৬ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ৯৩৭ জন।
এর একদিন আগে সোমবার (৩১ আগস্ট) দেশে আরও ২ হাজার ১৭৪ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আওর ৩৩ জন।

এদিকে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৫৪ হাজার ৭৪৭ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৫৬ লাখ ৩৩ হাজার ১৯৪ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৭৯ লাখ ৩৮ হাজার ৯৮০ জন।বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ১ লাখ ৮৭ হাজার ৭৩৬ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এ নিয়ে ৬২ লাখ ১১ হাজার ৭৯৬ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

আর আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ লাখ ১০ হাজার ৯০১ জন। এবং এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ২১ হাজার ৫১৫ জন।করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৫ হাজার ৪৩৫ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ লাখ ৮৭ হাজার ৯৩৯ জন।করোনায় মৃতের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৪ হাজার ৪১৪ জন। আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ৯ লাখ ৯৫ হাজার ৩১৯ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১৭ হাজার ১৭৬ জন।
সুস্থতার দিক থেকেও প্রথম অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (৩৪ লাখ ৫৬ হাজার ২৬৩ জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (৩০ লাখ ৯৭ হাজার ৭৩৪ জন), এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত (২৮ লাখ ৩৭ হাজার ৩৭৭ জন)।

error: Content is protected !!