বন্দুক বুকে জড়িয়েই ঘুমাচ্ছে চীনা সেনারা!

বিতর্কিত লাদাখে ভারত-চীন সীমান্তে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন ভারতীয় সেনা এবং ৪৩ জন চীনের সেনা নিহত হওয়ার ঘটনায় সীমান্তে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রতিশোধ নিতে মরিয়া ভারত লাদাখে যুদ্ধবিমান ও অ্যাটাক হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে। চীনও পিছু হটেনি, বরং উত্তেজনা বাড়িয়ে সেনা বৃদ্ধি করে চলেছে। এরইমাঝে চীন সেনাবাহিনীর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।সূত্র- কলকাতা২৪।

চীনের সংবাদমাধ্যম পিপল’স ডেইলির পক্ষ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে, পিপল’স লিবারেশন আর্মির স্পেশাল ফোর্সের সেনারা তাদের কঠোর প্রশিক্ষণের মাঝে অবসরের সময়েও তাদের বন্দুক আঁটসাঁট করে জড়িয়ে শুয়ে আছে।

১৮ সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, কঠোর পরিশ্রমের ট্রেনিং সেশনের পরে তাদের বন্দুককে আগলে রেখেই কোন রকমে বিশ্রাম করছেন। ঠিক এমন সময়েই স্কোয়াড লিডাররা তন্দ্রাবস্থায় বন্দুক নিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলেও চীন সেনাবাহিনীর সৈন্যরা চোখে ঘুম নিয়েও তা শক্ত করে ধরে রাখে। তৎক্ষণাৎ কিছু সৈন্যরা তড়িঘড়ি উঠে দেখতে শুরু করে সেখানে কী সমস্যা হয়েছে।

চাইনিজ আর্মির এই ভিডিও শেয়ার হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই কমেন্ট সেকশনে ট্রোল এবং কটাক্ষ করে মন্তব্য করতে শুরু করে ভারতীয়রা। অনেক ভারতীয় মনে করেন এই ভিডিওটি একটি ‘মত ও নীতি প্রচারের কার্যকলাপ’। কিছু মানুষ বলেছেন, ‘চীনের সৈন্যরা ভারতীয় সৈন্যদের জন্য সতর্ক হয়েছিলেন এবং বাকিরা ‘চীনের সৈন্যদের অভিনয় ক্ষমতা’ নিয়ে মন্তব্য করেছেন।

গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান ভ্যালিতে ভারত-চীন মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন ২০ জন সেনা সদস্য এবং কমপক্ষে আহত হয়েছেন ৭৬ জন। ভারতের দাবি চীন সেনাবাহিনীতেও প্রাণহানি হয়েছে, প্রাণ হারিয়েছেন কম্যান্ডিং অফিসার। জানা গেছে, সীমান্তে চীনের তরফেই এই হামলা শুরু হয়েছিল। আমেরিকান গোয়েন্দারা জানিয়েছে, চীন সেনায় ৩৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

এদিকে, প্যাংগঙে নির্মাণ কাজ রীতিমত জোরকদমে শুরু করে দিয়েছে চীন। ৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বাঙ্কার বানিয়ে ফেলেছে চীন সেনা। প্যাংগঙের যে এলাকা ভারত নিজের বলে দাবি করে, সেই এলাকাতেই বানানো হয়েছে বাঙ্কার।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!