December 3, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদকে বহিষ্কারের স্মারকলিপিতে গণস্বাক্ষর যুক্তরাষ্ট্রে

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার দায়ে মত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে থাকা লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) এম রাশেদ চৌধুরীকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়ার জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বারকে স্মারকলিপি দেয়া হবে। এ উপলক্ষে গণ-স্বাক্ষর অভিযানে নেমেছে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখা।

এর সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মিয়া জানান, জাতির জনকের ঘাতক মিথ্যা তথ্য দিয়ে এসাইলাম পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। সেটি গভীরভাবে পর্যালোচনা করছেন ইউএস অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার। এজন্যে আমরা তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছি। এখন সময় হচ্ছে ঘাতক রাশেদের এসাইলাম বাতিল করে বাংলাদেশের আদালতে সোপর্দ করার।

উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে অ্যাটর্নি জেনারেলের প্রতি আকুল আবেদন জানানো হয়েছে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে তার এসাইলাম বাতিলের পর বহিষ্কারের জন্যে।
এর আগে গত বছর জাতিসংঘে সাধারণ অধিবেশনে যোগদানকালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ঘাতক রাশেদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে প্রদত্ত রায়ের কপি হস্তান্তর করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।
বাংলাদেশ সরকার বহু বছর ধরে রাশেদ চৌধুরীকে ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছে।

গতবছর মে মাসে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি অ্যালিস ওয়েলসের সঙ্গে এক বৈঠকের পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন জানান, বাংলাদেশে রাশেদ চৌধুরীর বিচারের নথিপত্র চেয়েছে ওয়াশিংটন।

পরে চলতি বছর এপ্রিলেও ঢাকায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলারের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা হয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের।

error: Content is protected !!