ফোবানার চেয়ারপারসন নির্বাচিত হলেন জাকারিয়া, সচিব মাসুদ

কানাডা এবং আমেরিকায় বসবাসরত ১৫ লাখের মতো প্রবাসীর বাঙালি সংস্কৃতি লালন এবং নতুন প্রজন্মে তা বিকাশের অভিপ্রায়ে ১৯৮৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ফোবানা (ফেডারেশন অব বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন ইন নর্থ আমেরিকা)। আর এ সংগঠনের নির্বাচনে ফোবানা’র নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন হয়েছেন জাকারিয়া চৌধুরী (নিউইয়র্ক)।

এছাড়া নির্বাহী সচিব হয়েছেন মাসুদ রব চৌধুরী (ক্যালিফোর্নিয়া) এবং জর্জিয়ার নাহিদ উদ্দিন খান (জর্জিয়া) হয়েছেন কোষাধ্যক্ষ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার মাহবুব রেজা রহিম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রবিবার ভার্চুয়ালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৬১ ভোটারের সকলই অংশ নিয়েছেন। ফোবানার ৩৩ বছরের ইতিহাসে এটি একটি বিরল ঘটনা। ফোবানা যে পুনরায় প্রাণচাঞ্চল্যে ভরে উঠেছে, এটি তারই প্রমাণ।

ফলাফল অনুযায়ী, মাত্র ৩ ভোটের ব্যবধানে অর্থাৎ ৩২ ভোট পেয়ে চেয়ারপারসন হিসেবে জয়ী হয়েছেন জাকারিয়া চৌধুরী। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মোহাম্মদ আলমগীর। তিনি পেয়েছেন ২৯ ভোট।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ড. আহসান চৌধুরী পেয়েছেন ২২ ভোট। তার দুই প্রতিদ্বন্দ্বী এম রহমান জহীর ২১ এবং দিলু মাওলা পেয়েছেন ১৮ ভোট। নির্বাহী সচিব হিসেবে জয়ী মাসুদ রব চৌধুরী পেয়েছেন সর্বোচ্চ সংখ্যক ৩৮ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ড. রফিক খান পেয়েছেন মাত্র ২৩ ভোট।

যুগ্ম নির্বাহী সচিব আরিফ আহমেদ পেয়েছেন ২৫ ভোট। তার দুই প্রতিদ্বন্দ্বী খালেদ রব ২১ ভোট এবং আবির আলমগীর পেয়েছেন ১৫ ভোট। ট্রেজারার পদে বিজয়ী নাহিদ খান পেয়েছেন ৩৫ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী কীরণ কবীর পেয়েছেন ২৬ ভোট।

নির্বাচনে আউস্ট্যান্ডিং মেম্বর হিসেবে জয়ী হয়েছেন ডিউক খান, আতিকুর রহমান, হাসমত মোবিন, নাহিদ চৌধুরী মামুন, এ টি এম আলম, সাদেক খান, আরেফিন বাবুল ও রেহান রেজা। পদাধিকার বলে মেম্বর হয়েছেন বিদায়ী সভাপতি শাহ হালিম।

ফলাফল জানানোর সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, অংশগ্রহণকারী সকলেই ভিডিওতে ধারণকৃত বক্তব্যে নির্বাচনকে সুষ্ঠু হিসেবে অভিহিত করেছেন।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে এবারের ফোবানা কনভেনশন ভার্চুয়ালে অনুষ্ঠিত হলো। নির্বাচন হয় সমাপনী দিবসে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!