প্রেমিকা ফোন না ধরায় তিনতলা থেকে লাফ দিলো যুবক

গত ক’দিন ধরে ‘প্রেমিকা ফোন না ধরায়’ তিনতলা থেকে লাফ দিয়েছেনএক যুবক। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। দুরাই নামের ২২ বছর বয়সী ওই যুবক পেশায় অটোচালক। ভারতের চেন্নাইয়ে ঘটনাটি ঘটে।
জানা গেছে, কোরোনেশন নগরের একটি কমপ্লেক্সে মা-বাবার সঙ্গে থাকেন দুরাই। দীর্ঘদিন ধরে এক যুবতীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার। ওই যুবতীও থাকতেন একই কমপ্লেক্সে। কিন্তু করোনার কারণে লকডাউন জারি হতেই দু’জনের দেখা সাক্ষাৎ বন্ধ হয়ে যায়। এরপর মেসেজ এবং ফোনে যোগাযোগ অব্যাহত থাকলেও একপর্যায়ে ওই যুবতী ফোন করাও বন্ধ করে দেন। আর তারপর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করেন দুরাই। এরপর ঘটনার দিন যে বিল্ডিংয়ে তিনি থাকতেন, সেটির তিনতলা থেকেই ঝাঁপ দেন। সৌভাগ্যবশত প্রাণে বেঁচে যান। কিন্তু পায়ে গুরুতর আঘাত লাগে। একাধিক হাড় ভেঙে যায়। ওই সময় দুরাইয়ের চিৎকার শুনে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। তারাই আহত যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

ইতিমধ্যে আরকে নগর থানার পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন। দুরাইয়ের মোবাইল ফোন সংগ্রহ করা হয়েছে। সুস্থ হলে তার বয়ান রেকর্ড করা হবে। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!