December 4, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

প্রবাসীদের সতর্ক করলো মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস

মহামারি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে মালয়েশিয়া সরকারের চলমান রিকোভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) চলছে। এরমধ্যে বিদেশি সাধারণ কর্মীদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করার সুযোগ নেই। তবে এক শ্রেণির দুষ্টচক্র ভিসা দেওয়াসহ মালয়েশিয়া ফেরত আসার বিষয়ে প্রলোভন দেখিয়ে বাংলাদেশে আটকা পড়া সাধারণ প্রবাসীদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয়ার পায়তারা করছে। এ বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন।
শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনের অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

করোনা পরিস্থিতির কারণে ছুটিতে যাওয়া মালয়েশিয়া প্রবাসীরা দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। কবে আবার মালয়েশিয়ার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে, আবার কবে তারা কাজে যোগ দিতে পারবেন বা আদৌ পারবেন কী না তা নিয়ে রয়েছেন অনিশ্চয়তায়।

মালয়েশিয়াজুড়ে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে চলছে রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও)। যা শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর। সম্প্রতি বিভিন্ন দেশ থেকে মালয়েশিয়ায় আসা ও অনিবন্ধিত অভিবাসীদের মধ্যে নতুন করোনা সংক্রমিতের ক্লাস্টার চিহ্নিত হওয়ার পর বাংলাদেশসহ প্রায় ১২টি দেশের নাগরিকদের মালয়েশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির সরকার।

স্থানীয় সময় শুক্রবার মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনের অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, যেসব কর্মী মালয়েশিয়া থেকে ছুটিতে গিয়ে বাংলাদেশে অবস্থান করছেন অথবা মালয়েশিয়ায় আসার জন্য অপেক্ষায় আছেন এবং ইতোমধ্যে অনেকের ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে তাদের আরো অপেক্ষা করতে হবে কারণ বর্তমানে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে মালয়েশিয়া সরকার রিকোভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) জারি করেছে। এ আরএমসিও চলাকালে বিদেশি সাধারণ কর্মীদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করার সুযোগ নেই।

তবে এ সুযোগে এক শ্রেণির দুষ্টচক্র ভিসা দেওয়াসহ মালয়েশিয়া ফেরত আসার বিষয়ে প্রলোভন দেখিয়ে বাংলাদেশে আটকা পড়া সাধারণ প্রবাসীদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয়ার পায়তারা করছে। এ বিষয়ে মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন ।

error: Content is protected !!