প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বেলজিয়াম আ. লীগের জুম কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন উপলক্ষে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জুম কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল হকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এই সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির দুইবারের সহপ্রচার সম্পাদক , কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির দুই দুইবার সহসভাপতি, ৮০র দশকের এরশাদ বিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক, জামাত বি এন পি দ্বারা লাঞ্ছিত ছাত্র নেতা, দুঃ সময়ে পরীক্ষিত বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী ছাত্রনেতা, জননেত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত স্নেহেভাজন , চট্টগ্রামের কৃতি সন্তান, এবং অনলবর্ষী বক্তা জনাব এম. আমিনুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সর্ব ইউরোপিযান আওয়ামী লীগ সভাপতি জনাব এম নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জনাব মুজিবুর রহমান, ইউরোপীয়ান পার্লামেন্টের সাবেক এম পি এবং সাউথ এশিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোরামের ডিরেক্টর জনাব পাওলো কাসাকা, বেলজিয়াম সোশ্যালিস্ট ট্রেড ইউনিয়নের সেক্রেটারি এবং নির্বাচিত ডেলিগেট, ইসাম বেনালি।

সভায় বক্তাগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্থ জীবন কামনা করে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে, বিশ্বের দরবারে আজ বাংলাদেশ মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে। বঙ্গবন্ধু রাজনৈতিক স্বাধীনতা দিয়েছে, তার যোগ্য কন্যা বাংলাদেশকে অর্থনীতিক স্বাধীনতা দিচ্ছেন। অর্থনীতির উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন, শ্রমিকদের মান উন্নয়ন, দরিদ্র বিমোচন, শিক্ষার মান উন্নয়ন, পরিবেশ রক্ষা এবং ক্লাইমেট চেঞ্জ মোকাবেলায় এবং বাংলাদেশে করোনা মোকাবেলায় শেখ হাসিনার ভূমিকা সারা পৃথিবীতে স্বীকৃত। জাতিসংঘ সহ অনেক আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বেলজিয়াম সহ বিশ্বের অনেক দেশ থেকে মানবাধিকার, সুশাসন,নারীর ক্ষমতায়ন এবং দরিদ্র বিমোচনের জন্য অনেক সম্মানিত ডক্টরেট উপাধিতে ভূষিত হন । বিশ্ব শান্তির নেত্রী, মাদার অফ হিউম্যানিটি শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া থেকে শুরু করে,মৌলবাদ, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখিয়ে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার এক উজ্জ্বল উদাহরণ রাখেন। সভায় বক্তাগণ বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা শিখিয়েছেন কিভাবে ত্যাগী কর্মী হতে হয়। প্রধান অতিথি এম আমিনুল ইসলাম শেখ হাসিনার প্রতি বাংলাদেশের হত দরিদ্র মানুষের ভালবাসা নিয়ে আবেগঘন বক্তব্য রাখেন এবং নেতা হওয়ার আগে কর্মী হওয়ার আহ্বান জানান।

বক্তব্য রাখেন, ফ্রান্স আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এ কাসেম, জার্মান আওয়ামী লীগ সভাপতি বশিরুল আলম চৌধুরী সাবু, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার হাফিজুর রহমান নাসিম, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগ সাবেক প্রচার সম্পাদক খোকন শরীফ, নেদারল্যান্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহাদাত হোসেন তপন, পর্তুগাল আওয়ামী লীগ সাবেক সভাপতি রফিকউল্লাহ মুন্সী , বর্তমান সভাপতি জহিরুল আলম জসিম, সুইডেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ড: ফরহাদ আলী খান,ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জনাব মাহবুবুর রহমান, স্পেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক রিজভী আলম,পর্তুগাল আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম, জার্মান আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা ড.ফারুক মির্জা , সহসভাপতি নিরঞ্জন রায়, সহ সভাপতি হুমায়ুন মাকসুদ হিমু, যুগ্ম সম্পাদক দাউদ খান সোহেল, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মোর্শেদ মাহমুদ, প্রচার সম্পাদক আখতারুজ্জামান, মহিলা নেত্রী আনার চৌধুরী, সদস্যা সবেরা হাছান, সদস্যা নুসরাত শরীফ, বেলজিয়াম যুবলীগ সভাপতি খালেদ মিনহাজ, বেলজিয়াম যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আরিফ উদ্দিন প্রমুখ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!