পুলিশের গুলিতে নিহত ২, তৃতীয় দিনের বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ জেকব ব্লেকের ওপর পুলিশের গুলির প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে দেশটির শহর কেনোশায়। এ নিয়ে তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিক্ষোভ। আর বিক্ষোভকালে পুলিশের গুলিতে এখন পর্যন্ত দু’জন নিহত এবং একজন আহত হবার খবর নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তবে, তাদের পরিচয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়নি।
এখন পর্যন্ত লস এঞ্জেলস, নিউইয়র্ক, মিনেপোলিসের মতো শহরগুলোতে বিক্ষোভ ছড়িয়েছে।বিক্ষোভ ঠেকাতে কেনোশায়ে কারফিউ জারি করা হলেও, জনগণ তা উপেক্ষা করে বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছে।

ব্লেকের ওপর গুলি বর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত দুই পুলিশ সদস্যকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।

বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়, পুলিশ বলছে, তিন ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তবে কারা এর সঙ্গে জড়িত সে সম্পর্কে জানানো হয়নি।

এর আগে ২৫ মে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের বৃহত্তম শহর মিনিয়াপলিসে পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক নিহত হন। ওই সময় দেশজুড়ে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়। এ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায়।

এর মধ্যেই রোববার সন্ধ্যায় উইসকনসিনের কেনোসা শহরে পুলিশের গুলিতে গুরুতর আহত হন জ্যাকব ব্লেক নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, দুই পুলিশ তাঁকে অনুসরণ করতে থাকে। ২৯ বছর বয়সী ওই কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ গাড়িতে ওঠার সময় পুলিশ তাঁকে পেছন থেকে গুলি করে। পর পর সাতটি গুলির শব্দ শোনা যায়। পরে তাঁকে পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনা সামনে আসার পর রাতেই হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে রাস্তায় নেমে আসে। বিক্ষোভকারীরা আগ্রাসি হয়ে উঠলে টিয়ার গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। জারি হয় কারফিউ। তবে কারফিউ উপেক্ষা করেই সোমবার ও মঙ্গলবার রাতে আবারও রাস্তায় নামে বিক্ষোভকারীরা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, একটি গ্যাস স্টেশনে নিরাপত্তায় নিয়োজিত সশস্ত্র ব্যক্তিদের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হলে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

এক বিবৃতিতে কেনোসা পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে শহরে গুলির ঘটনায় কয়েকজন আহতের খবর পাওয়া গেছে। গুলিতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে এবং গুলিবিদ্ধ একজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, ব্লেকের পরিবারের পক্ষ থেকে সহিংস আচরণ থেকে বিরত থাকতে আহ্বান জানানো হয়েছে সকলের প্রতি ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!