পম্পেও-মোমেন আলোচনা

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইকেল পম্পেও  এবং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যকার সম্পর্কের গুরুত্ব নিশ্চিত করা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। 

 ২৯ শে জুন সোমবার এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্কের মধ্যে রয়েছে দীর্ঘমেয়াদি অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা ও টেকসই উন্নয়নের জন্য স্বচ্ছতা ও তথ্য পাওয়ার সুবিধার ওপর গুরুত্বারোপ করা। এ সময়ে তারা কোভিড-১৯ মহামারির সমাধান নিয়ে অব্যাহত সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করেন। 

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশকে দেয়া যুক্তরাষ্ট্রের কোভিড-১৯ সহযোগিতায় দেয়া কমপক্ষে ৪ কোটি ৩০ লাখ ডলারের বিষয়ে পর্যালোচনা করেন। এ সময়ে মেডিকেল জরুরি সামগ্রী ও সুরক্ষা সামগ্রী উৎপাদনের মাধ্যমে চলমান মহামারিতে আন্তর্জাতিক দায়িত্বের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েও আলোচনা হয়। 

এছাড়া, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ অব্যাহতভাবে যে উদারতা দেখাচ্ছে, তার জন্য বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের কাছে প্রশংসা করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও। এতে বলা হয়, রোহিঙ্গা সঙ্কটে মানবিক সহায়তা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ৮২ কোটি ডলার দিয়েছে। এর বেশির ভাগই বাংলাদেশের ভিতরে বিভিন্ন কর্মসূচির জন্য দেয়া হয়েছে। এই দুই নেতা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বেচ্ছায়, নিরাপদে, মর্যাদার সঙ্গে এবং টেকসই প্রত্যাবর্তনের প্রতি তাদের সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!