November 28, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের প্রতিবাদে নিউইয়র্কে প্রবাসীদের বিক্ষোভ

বহুল আলোচিত নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে নিউইয়র্ক প্রবাসী বৃহত্তর নোয়াখালীবাসী।সোমবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত ব্রুকলিন চার্চ ম্যাক ডোনাল্ডে মানববন্ধনে শত শত প্রবাসী অংশ নেন। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তারা।

বক্তারা বলেন, বেগমগঞ্জের একলাশপুরে অসহায় নারীর ওপর বর্বরোচিত নির্যাতন বৃহত্তর নোয়াখালীকে কলঙ্কিত করেছে। ধর্ষকের কোনো দল নেই। ধর্ষকের পরিচয় শুধু ধর্ষক। ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড আইন করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানান তারা।

ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ ও মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আবুল বাশার, শাহজাহান সাজু, রহমত উল্লাহ, মো. বাবলু, সালাহ উদ্দিন রুবেল, মেহেদী হাসান, আরমান হোসেন, শাহাদাত হোসেন আপন, রাইমুল ইসলাম প্রিন্স, নাজমুল আলম নাঈম, মুনীর হোসেন সৌরভ, নুরুল ইসলাম, শহীদ হোসেন, শফিকুল হায়দার সম্রাট, মো. আলী হাসান ও মাহমুদুল হাসান।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন যুবক একজন নারীকে বিবস্ত্র করে মারধর করছে। তাদের একজন পা দিয়ে ওই নারীর মুখ চেপে ধরেছে। বারবার আকুতি জানানোর পরও তার ওপর নির্যাতন থামেনি।

গত ২ সেপ্টেম্বর একলাশপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার ৩২ দিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর রোববার (৪ অক্টোবর) বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। এ ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে একলাশপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে গৃহবধূর বসতঘরে ঢুকে তার স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখে স্থানীয় বাদল ও তার সহযোগীরা।

এরপর গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করে তারা। এ সময় গৃহবধূ বাধা দিলে তাকে বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে তারা মোবাইলে ভিডিও চিত্র ধারণ করে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করা ওই নারীকে এক বছর আগে দুইবার ধর্ষণ করেছিলেন দেলোয়ার বাহিনীর দেলোয়ার। আজ মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) মানবাধিকার কমিশন তদন্ত দলের কাছে এক জবানবন্দিতে এই কথা জানান ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ।

ওই গৃহবধূ তদন্ত দলকে আরও জানান, দেলোয়ারের ভয়ে তিনি একথা এর আগে এতদিন কাউকে বলেননি।

error: Content is protected !!