জেরুজালেমে দূতাবাস খুলবে কসোভো, তুরস্কের তীব্র নিন্দা

কসোভোকে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিইয়ামিন নেতানিয়াহুর স্বীকৃতির দেয়ার ঘোষণার পরই জেরুজালেমে দূতাবাস খোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাশিম থাচি। তবে এমন সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে তুরস্ক। তারা জানিয়েছে, কসোভোর এমন সিদ্ধান্তে ক্ষতিপ্রস্থ হবে জাতিসংঘের প্রস্তাব ও ফিলিস্থিনি ইস্যু সমাধান।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, আমরা কসোভোর নেতৃবৃন্দকে আহ্বান করব জাতিসংঘের সিদ্ধান্তসমূহকে মেনে চলতে। এমন পদক্ষেপ জেরুজালেমের ঐতিহাসিক ও আইনি মর্যাদা ক্ষুন্ন করবে। এ পরিস্থিতিতে কসোভোকে ভবিষ্যতে অন্য দেশ স্বীকৃতি নাও দিতে পারে।

শনিবার এক টুইট বার্তায় কসোভোর প্রেসিডেন্ট হাশিম থাচি জানান, কসোভোকে স্বীকৃতি প্রদান ও কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের সত্যিকারের উদ্দেশ্য সম্পর্কে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু ঘোষণাকে স্বাগত জানাই। কসোভো জেরুজালেমে তার কূটনৈতিক মিশন স্থাপনের প্রতিশ্রুতি রাখবে।

কসোভো ইউরোপের বলকান অঞ্চলের একটি রাষ্ট্র। এটি আগে সার্বিয়ার একটি প্রদেশ ছিল। প্রদেশটি ১৯৯৯ সাল থেকে জাতিসংঘ প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এটি স্বাধীনতা ঘোষণা করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বেশ কিছু দেশ কসোভোকে রাষ্ট্র হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। দেশটির জনংখ্যার ৯৫ শতাংশই মুসলমান।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!