জীবন রেখে ছিনতাইকারী ধরলেন ১৫ বছরের রক্তাক্ত কিশোরী (ভিডিও)

ছিনতাইকারী চক্রের দৌরাত্ব যেন থামছে না। প্রায়ই ঘটছে অভিনব কায়দায় এ ছিনতাইয়ের ঘটনা। কোন অসহায় বা সহায় ব্যক্তির কষ্টার্জিত অর্থ অভিনব কায়দায় ব্যস্ত শহরে ছিনতাইয়ের শিকার হওয়া নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। ছিনতাই হওয়ার পর চোর উধাও হওয়ার ঘটনাও প্রায়ই শোনা যায়। তবে সবসময় যে চোর পালিয়ে পার পাবে, তেমনটা কিন্তু নয়। তেমনই এক ঘটনা ঘটল ভারতের পাঞ্জাবের জলন্ধরে।

১৫ বছরের কিশোরী কুসুম কুমারী ফোন নিয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল। হঠাৎ বাইকে করে দু’জন দুষ্কৃতী এসে হাজির। মেয়েটির হাত থেকে ফোন ছিনিয়ে নিতেই মেয়েটি চলন্ত বাইকে থাকা ছিনতাইকারীর টি-শার্ট খামচে ধরে। কিছুতেই সে টিশার্ট ছাড়ে না। অনেক চেষ্টাতেও জামা ছাড়াতে পারে না ছিনতাকারী। জামা টেনে বাইকে থেকে নামিয়ে নেয় ওই সাহসী মেয়ে। এবার ধারালো চাকু দিয়ে মেয়েটির হাতে আঘাত করতে থাকে দুষ্কৃতী। তবুও মেয়েটি ছাড়ে না। এই ঘটনা দেখতে পেয়ে দু’চারজন জমা হয়ে যান এবং ধরা পড়ে চোর। মেয়েটির সারা হাত রক্তে ভেসে যাচ্ছে। তবুও সে কিছুতেই চোরকে ছাড়ে না। অবশেষে নিজের মোবাইল কুড়িয়ে নেয় সে। এই ঘটনা ধরা পড়ে সিসিটিভি ফুটেজে। যা দেখে তাজ্জব গোটা দুনিয়া।

কুসুম কুমারীর বাবা দিনমজুরি করে সংসার চালান। পুলিশ ওই দুই চোরকে গ্রেফতার করেছে। কুসুম কুমারীর এই সাহসিকতা দেখে পাঞ্জাবের পুলিশ কমিশনার গুরপ্রীত সিং তার নাম পাঠাচ্ছে দেশের সাহসী মেয়েদের মধ্যে। এছাড়াও তাকে দেওয়া হবে state level bravery award.. এছাড়াও ৫১ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে।

তাছাড়া ওxiaomi-র হেড মনু কুমার জেইন এই ভিডিও ট্যুইটারে শেয়ার করে বলেছেন, আমাকে এই সাহসী কন্যার ঠিকানা জানান দয়া করে। এই সাহসী কন্যাকে একটি নতুন স্মার্ট ফোন উপহার দিতে চাই আমি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!