গালওয়ানে নিজেদের সৈন্য নিহত হওয়া নিয়ে মুখ খুলল চীন 

ডেস্ক রিপোর্ট:

চীন সীমান্তে লাদাখে উত্তেজনায় গত ১৫ জুন ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়। ভারতের পক্ষ থেকেও দাবি করা হয় চীন-ভারত সংঘর্ষে চীনের ৪০জন সেনা নিহত হয়েছে। এতদিন এ নিয়ে চীন কোন আনুষ্ঠানিক মন্তব্য করেনি। এবার লাদাখের গালওয়ানে সংঘর্ষে নিজেদের সৈন্য নিহত হওয়া নিয়ে মুখ খুলল চীন।

সম্প্রতি ভারত-চীন সীমান্তে দু’দেশের সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষে চীনের ৪০ জন সেনা নিহত হয়েছে বলে নয়া দিল্লি যে দাবি করছে তা অস্বীকার করেছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২৩জুন) এক বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষের ঘটনায় চীনের কমপক্ষে ৪০ সেনা নিহত হয়েছেন বলে ভারতের কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিবহন বিষয়ক মন্ত্রী ভিকে সিং যে দাবি করেছেন তার কোনো ভিত্তি নেই।

সম্প্রতি ভারত চীন সীমান্তের লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় দু’দেশের সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ৪০ জন সেনা নিহত হয়েছে বলে দাবি করেন ভিকে সিং। তবে সাবেক সেনা প্রধান ভিকে সিং তার বক্তব্যের পক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি।

গত সোমবার সংঘটিত ওই সংঘর্ষে দুই পক্ষের বহু সেনা হতাহত হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমে খবর এসেছে। ওই ঘটনায় ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৭৬ ভারতীয় সেনা। তবে চীনের পক্ষ থেকে এই সংঘর্ষের ঘটনায় হতাহতদের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলা হয়নি।

এদিকে গালওয়ানে ভারত-চীন সীমান্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর বৈঠক করেছেন দুই দেশের সামরিক কমাণ্ডাররা। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে ইরানের ইংরেজি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল প্রেসটিভি এ খবর দিয়েছে। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে দ্বিতীয় দফা বৈঠক হলো।

দুই দফা বৈঠক হলেও সীমান্তে চীনা আগ্রাসন ঠেকাতে বিশেষ পর্বত বাহিনী মোতায়েন করেছেন ভারত। চীন-ভারতের মধ্যে ৩ হাজার ৪৮৮ কিলোমিটার প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (সীমান্ত) রয়েছে। এই পুরো সীমান্ত জুড়ে বিশেষ বাহিনী মোতায়েন করেছে দেশটি। চীনা লিবারেশন আর্মি পশ্চিম বা মধ্য সেক্টরে সীমান্ত লঙ্ঘন করলে জবাব দেবে এ বিশেষ বাহিনী।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!