গণস্বাস্থ্যের কিট পরীক্ষার অনুমতি দেয়নি ঔষধ প্রশাসন

করোনা ভাইরাস শনাক্তের জন্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিটের সক্ষমতা পরীক্ষার অনুমতি দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর।বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এ মর্মে সংবাদ পরিবেশিত হচ্ছে যে, মেসার্স গণস্বাস্থ্য ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড কর্তৃক উদ্ভাবিত GR Covid-19 Rapid Dot Blot Immunoassay কিটের পরীক্ষার জন্য ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে। যা সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে কিটের কার্যকারিতা পরীক্ষা (Performance Trial) করার জন্য সকল নিয়ম মেনে ঔষধ প্রশাসন কর্তৃক অনুমোদিত CR0-3: ICDDRB এবং CR0-10: BSMMU কর্তৃক সম্পন্ন করার জন্য গণস্থাস্থ্য ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড এর আবেদনের প্রেক্ষিতে অনুমতি প্রদান করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এসব পারফরম্যান্স ট্রায়াল শেষে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে পরবর্তী প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

এর আগে বিকেলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের কিট পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) অথবা আইসিডিডিআর,বি’র যেকোনো একটিতে পরীক্ষা করার কথা বলেছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।’

এরই মধ্যে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর বিএসএমএমইউর উপাচার্যকে এ বিষয়টি চিঠি দিয়ে জানিয়েছে বলেও জানান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা।
গত ১৭ই মার্চ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র জানায় যে, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের পরীক্ষার জন্য তারা একটি কিট তৈরি করেছে। করোনাভাইরাস শনাক্তকরণের ‘জিআর র‌্যাপিড ডট বট ইমিউনোঅ্যাসি’ কিট তৈরির জন্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গবেষক দলের নেতৃত্ব দেন ড. বিজন কুমার শীল।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.