December 4, 2020

মাই পেটারসন. লাইফ

ভয়েস অফ দ্যা কমিউনিটি

কৃষকের ছেলে সুগা হচ্ছেন জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী

বিদায়ী জাপানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শিনজো অ্যাবের যোগ্য উত্তরসূরী ইউশিহিদে সুগাকে বেছে নিল ক্ষমতাসীন সরকার দল ডেমোক্র্যাট পার্টি-এলডিপি। করোনাভাইরাসে হিমশিম খাওয়া জাপানের হাল যে তিনিই ধরতে যাচ্ছেন তা অনেকটা স্পষ্ট।

৭১ বছর বয়স্ক ইয়োশিহিদে সুগা জন্ম নিয়েছিলেন একজন স্ট্রবেরি চাষীর ঘরে। মেধা আর কঠোর পরিশ্রমে তিনি পরিণত হন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদে।রক্ষণশীল লিবারেল ডেমোক্রেট পার্টি (এলডিপি) ক্ষমতায় এলে তাকে মন্ত্রীপরিষদের মুখ্য সচিব করা হয়।

মোট ৫৩৪– ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য ৩৯৩ আর অন্যান্য রাজনৈতিক দলের ১৪১– ভোটের মধ্যে ইয়োশিহিদে সুগা পেয়েছেন ৩৭৭। তার প্রতিদ্বন্দ্বী নীতি-নির্ধারক পরিষদের চেয়ারম্যান ফুমিদো কিশিদা পেয়েছেন ৮৯ ভোট। আর সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী শিগেরু ইশিবা পেয়েছেন ৬৮ ভোট।

এখন প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার মধ্যমেয়াদ। ফলে সরকারের বাকি অর্ধেক সময় টেনে নিতে হবে ইয়োশিহিদে সুগাকেই। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে নতুন সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে জাপানে।

বুধবার পার্লামেন্টে আরেকটি ভোটে জাপানের প্রধানমন্ত্রী বেছে নেয়া হবে। পার্লামেন্টে এলডিপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় তাদের নতুন নেতাই নিশ্চিতভাবে জাপানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীত্বের পাশাপাশি সুগা এলডিপির নেতৃত্বও দিবেন।
দেশটিতে জাতীয় নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত আগামী ২০২১ সাল পর্যন্ত অন্তবর্তীকালীন সরকারের নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন ইউশিহিদে সুগা।

গত (২৮ আগস্ট) শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন শিনজো অ্যাবে। দীর্ঘ আট বছর ধরে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি। অ্যাবের হঠাৎ পদত্যাগে দুঃখপ্রকাশ করে বিশ্ব নেতারা মহানবন্ধু হিসেবে অ্যাখা দেন তাকে।

error: Content is protected !!