কুয়েতের সিংহভাগ সবজির চাহিদা বাংলাদেশি প্রবাসীরা

কুয়েত প্রতিনিধি: কুয়েতে প্রায় তিন লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। যাদের মধ্যে প্রায় ২৫ থেকে ৩০ হাজার প্রবাসী এ দেশের মাজারা বা কৃষি কাজের সাথে জড়িত।

কুয়েতে কৃষি অঞ্চল বলে খ্যাত দুটি এলাকা, দেশটির এক প্রান্তে ওয়াফরা ও অন্য প্রান্তে আব্দালী এলাকা। আর এ দুটি এলাকায় এসব প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকরা কুয়েতের সিংহভাগ সবজির চাহিদা মেটাতে কাজ করেন।

কুয়েতের উত্তর সীমান্তের নিকটবর্তী বসরা (ইরাক) এর ৮০ নম্বর রোডের পূর্বদিকে অবস্থিত কৃষি খামারের একটি বৃহৎ অঞ্চল এর নাম আব্দালি। ওই এলাকায় কৃষকেরা চাষাবাদ করছেন মাসকলাই, ফুলকপি, বাঁধাকপি,পালং শাক, লাল শাকসহ বিভিন্ন সবজি ও আবাদি ফসল।

সবজি উৎপাদন কাজের জন্য তাদের ন্যায্য পারিশ্রমিকও পাচ্ছেন বলে জানান তারা।

৫০ থেকে ৬০ ডিগ্রী তাপমাত্রার মধ্যেও শীতকালীন সবজি চাষ করে চলেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। শীত মৌসুমে শীতকালীন সবজি সহজেই চাষ সহজ হলেও গরমের সময় বিশেষ পদ্ধতিতে সবজি চাষ করতে হয় বলে জানান ওই এলাকায় কৃষি কাজে নিয়োজিত প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকরা।

আব্দালি এলাকায় কৃষি কাজসহ অন্যান্য কাজ করে বর্তমানে বেশ সাবলম্বী সিলেটের ছমির মিয়া ও সুলেমান আহমেদ।

তারা জানান, এই এলাকায় প্রায় ১০ থেকে ১২ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি কৃষি কাজে নিয়োজিত আছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!