কানাডার পার্লামেন্ট থেকে বিতাড়িত শিখ নেতা, ক্ষুব্ধ ট্রুডো

আমেরিকায় চলা বর্ণবিদ্বেষের বিক্ষোভের আঁচের তাপ লেগেছে পড়শি রাষ্ট্র কানাডাতেও। কানাডায় পুলিশের চাকরিতে বর্ণবৈষম্য হচ্ছে কি না তা চিহ্নিত করতে পার্লামেন্টে প্রস্তাব আনতে চেয়েছিল এনডিপি। যা সাফ খারিজ করে বিকিউ।

১৭ জুন, বুধবার কানাডার পার্লামেন্টে বিচ্ছিন্নতাবাদী পার্টি ব্লক কিউবেকস –এর এক সদস্য অ্যালান থেরিয়ানের সঙ্গে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন কানাডার নিউ ডেমোক্রেটিক প্রথম সংখ্যালঘু সদস্য জগমিত সিং।

এরপরই জগমিত অ্যালানকে বর্ণবিদ্বেষী বলে কটাক্ষ করেন। এমনকি নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমাও চাননি তিনি। তারপরই জগমিতকে পার্লামেন্ট থেকে সাময়িকভাবে বের করে দেওয়া হয়।

সেই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ১৮ জুন, বৃহস্পতিবার কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ক্ষোভপ্রকাশ করে বলেছেন, ‘‌এটা দুঃখজনক যে ব্লক কিউবেকয়েস এটা মেনে নিচ্ছে না যে আমাদের দেশে এখনো প্রথাগত বর্ণবৈষম্য, সামাজিক তারতম্য বজায় আছে প্রায় সব ক্ষেত্রেই। এব্যাপারটি নিশ্চিত করতে প্রথাগত ফারাক খুঁজে বের করাই হল প্রথম পদক্ষেপ।’‌

ট্রুডোর মতে, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে এব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হওয়া প্রয়োজন। বিকিউ–র প্রধান ওয়াই এফ ব্ল্যানশেট থেরিয়ানের পাশে দাঁড়িয়ে জগমিতকে ক্ষমা চাওয়ার এবং তার বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির দাবি জানান।‌‌

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!