করোনা ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ ডেকে আনতে পারে: জাতিসংঘ মহাসচিব

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মানবসমাজকে নজিরবিহীন সংকটের মধ্যে ঠেলে দিয়েছে এবং এটা গোটা বিশ্বের জন্য মহাবিপর্যয় বলে উল্লেখ করেছে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্থোনিও গুতেরেস।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্থোনিও গুতেরেস হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন, ‘করোনাভাইরাস যাতে দুর্ভিক্ষ ডেকে না আসে সেজন্য সবারই সতর্ক থাকা উচিত। এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন এ সংকট যেন কোনোভাবেই দুর্ভিক্ষে পরিণত না হয়। করোনাকে পরাজিত করার জন্য আমাদের সবারই উচিত ঐক্যবদ্ধ হওয়া এবং যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের পাশে থাকা।’

জাতিসংঘ মহাসচিবের এ উদ্বেগ থেকে বোঝা যায়, করোনার প্রভাবে বিশ্ব পরিস্থিতি অনিশ্চয়তার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে প্রাণঘাতী এ ভাইরাস দীর্ঘ সময় ধরে তাণ্ডব চালিয়ে যাবে এবং সারা বিশ্বের মানুষের জন্য তা দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে। এর আগে আঞ্চলিক কিংবা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যে কোনো সংকট বা যুদ্ধবিগ্রহের কারণে অর্থনৈতিক ক্ষতি কেবল একটি নির্দিষ্ট জায়গায় সীমাবদ্ধ থাকত। কিন্তু এখন করোনা পরিস্থিতিতে যে ভয়াবহ সংকট দেখা দিয়েছে তার প্রভাব বিশ্বব্যাপী এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এমন অবস্থা আর কখনো সৃষ্টি হয়নি। গত দুই মাসে করোনার প্রাদুর্ভাবে লাখ লাখ মানুষ ঘরবন্দী হয়ে আছে এবং বিশ্ব অর্থনীতি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে।

সব সরকারই করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় পদক্ষেপ নিলেও এবং প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করলেও অর্থনীতিবিদরা আশঙ্কা করছেন, করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বজুড়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক বিপর্যয় ঘটবে। এমনকি অতীতের যে কোনো অর্থনৈতিক মন্দাকে ছাড়িয়ে যাবে বর্তমানের দুরবস্থা। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নিকোলাস বার্নেয করোনার প্রাদুর্ভাবকে বর্তমান শতাব্দীর সবচেয়ে বড় বিপর্যয় হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, এ সংকটের মাত্রা এতোটাই ভয়াবহ যে কল্পনা করাও কঠিন।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সর্বশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনার কারণে সৃষ্ট সংকটে চলতি বছর বাণিজ্য বিনিময়ের পরিমাণ ১৩ থেকে ২৩ শতাংশ কমে যাবে।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, এ পরিস্থিতি উন্নয়নশীল কিংবা অনুন্নত অর্থাৎ দরিদ্র দেশগুলোর জন্য ধ্বংসাত্মক পরিণতি ডেকে আনবে। তাদের মতে করোনার ক্ষতিকর প্রভাবের ব্যাপারে বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদন থেকেও বোঝা যায় করোনার প্রভাবে দরিদ্র দেশগুলো আরো দরিদ্র হবে। এমনকি সম্পদশালী দেশগুলোও বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে। করোনার ধ্বংসাত্মক প্রভাব হবে দীর্ঘ মেয়াদি। অধিকাংশ অর্থনীতিবিদ সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, করোনার তাণ্ডবে বহু দেশের লাখ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের কবলে পড়বে। আমেরিকার মতো উন্নত দেশেরও বহু মানুষ বেকার হয়ে পড়বে। এখনই আমেরিকায় খাদ্যের জন্য কর্মহীন মানুষের কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

এ অবস্থায় বিশ্বব্যাপী দুর্ভিক্ষ ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে জাতিসংঘ মহাসচিবের হুঁশিয়ারি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।
প্রসঙ্গত গোটা বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ১৭ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যাও ২০ লাখ ছাড়িয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!